Dr. Neem on Daraz
international mother language day

গোলাপবাগে বিএনপির সমাবেশ শুরু


আগামী নিউজ | নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশিত: ডিসেম্বর ১০, ২০২২, ১১:৩৫ এএম
গোলাপবাগে বিএনপির সমাবেশ শুরু

ঢাকাঃ নির্ধারিত সময়ের ৪৫ মিনিট আগেই আনুষ্ঠানিকভাবে ঢাকা বিভাগীয় গণসমাবেশ শুরু করেছে বিএনপি। নির্ধারিত সময় অনুসারে বেলা ১১টায় গোলাপবাগ মাঠে সমাবেশ শুরু হওয়ার কথা থাকলেও সোয়া ১০টাতেই সমাবেশ শুরু করে দেওয়া হয়।  

বিএনপির অন্যান্য বিভাগীয় সমাবেশগুলোতেও দেখা গেছে নির্ধারিত সময়ের আগেই সমাবেশ শুরু করতে।

আজ সকাল সোয়া ১০টায় পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াতের মধ্যে আনুষ্ঠানিকভাবে সমাবেশ শুরু হয়। কোরআন তেলাওয়াত করেন জাতীয়তাবাদী ওলামা দলের আহ্বায়ক মাওলানা নেছারুল হক।  

এর আগে সমাবেশের স্থান নির্ধারণে কমিশন ও ঊর্ধতন কর্মকর্তাদের সাথে দফায় দফায় আলোচনার পরে শুক্রবার বিকেলে ঢাকায় সমাবেশ করার অনুমতি পেয়েছে বিএনপি। 

অনুমতি পাওয়ার পরে গতরাত থেকেই সমাবেশ স্থল পরিপূর্ণ হয়ে। এছাড়া আজ সকাল থেকেই খণ্ড খণ্ড মিছিল নিয়ে বিভিন্ন ওয়ার্ডের নেতাকর্মীরা সমাবেশস্থলে আসতে থাকে।

সমাবেশে আসা বিএনপির নেতাকর্মীরা জানান, সমাবেশের লক্ষ্য নিয়মতান্ত্রিক ও অহিংস আন্দোলনের ধারাবাহিকতায় দেশের মানুষকে উদ্বুদ্ধ করা। বর্তমান শাসকগোষ্ঠীর দেশ পরিচালনায় ব্যর্থতা ও দেশের মানুষের জীবনযাত্রায় নাভিশ্বাস এবং তাদের নেত্রীকে গৃহে অন্তরীণ করে রাখার ইস্যু নিয়ে আজকের ঢাকার গণসমাবেশ।

গত বুধবার বিএনপি নেতা কর্মীদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষ, একজনের প্রাণহানি, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসসহ দলের চার শতাধিক নেতাকর্মী গ্রেফতার, সমাবেশের স্থান নিয়ে দফায় দফায় আলোচনার পর শুক্রবার বিকেলে ঢাকায় সমাবেশ করার অনুমতি পেয়েছে বিএনপি।

দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ৯টি বিভাগীয় সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দিলেও বৃহস্পতিবার ৮ ডিসেম্বর দিবাগত রাতে গ্রেফতার হওয়ায় ঢাকা বিভাগীয় গণসমাবেশে তাকে পাচ্ছে না বিএনপি।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করছেন ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির আহ্বায়ক আমানউল্লাহ আমান। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেবেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন। সমাবেশ সঞ্চালনা করছেন ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ বিএনপি সদস্য সচিব আমিনুল হক ও রফিকুল আলম মজনু।

সমাবেশের মঞ্চে এরই মধ্যে উপস্থিত হয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নুল আবেদীন ফারুক, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব হাবিবুন নবী খান সোহেল, মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, রাজশাহীর সাবেক মেয়র মিজানুর রহমান মিনু, ছাত্রদলের সভাপতি কাজী রওনুকুল হাসান। ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি আজিজুল বারী হেলাল অনুষ্ঠান পরিচালনা করছেন।

সমাবেশের মূল-আকর্ষণ হিসেবে থাকছে আগামী দিনের গণআন্দোলনের ১০ দফা। একই সঙ্গে সমাবেশ থেকে আসবে আনুষ্ঠানিকভাবে যুগপৎ আন্দোলনের ঘোষণা এবং নতুন কর্মসূচিও।

জ্বালানি তেল ও নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি, দলীয় কর্মসূচিতে গুলি করে নেতাকর্মীদের হত্যার প্রতিবাদ এবং নির্বাচনকালীন নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের দাবিতে বিভাগীয় (দলের সাংগঠনিক বিভাগ) পর্যায়ে সমাবেশ করছে বিএনপি। দশটি বিভাগের কর্মসূচি আজ ঢাকায় সমাবেশের মধ্য দিয়ে শেষ হচ্ছে। 

বুইউ