Dr. Neem on Daraz
Dr. Neem Hakim

ইসি গঠনের নতুন আইন হবে ‘পচা কদু’: নজরুল


আগামী নিউজ | নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৯, ২০২২, ০৮:৫৭ এএম
ইসি গঠনের নতুন আইন হবে ‘পচা কদু’: নজরুল

ঢাকাঃ নির্বাচন কমিশন নিয়োগে মন্ত্রিসভায় যে আইনের খসড়া অনুমোদন হয়েছে তা ‘পর্বতের মূষিক প্রসব’ বা একটি ‘পচা কদু’ হতে যাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান।

মঙ্গলবার (১৮ জানুয়ারি) দুপুরে গুলশানে দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, অনুগত ও অপদার্থ নির্বাচন কমিশন গঠনের চলমান প্রক্রিয়াকে দলীয় স্বার্থে আইনি রূপ দেওয়ার সরকারি অপপ্রয়াসের ফলাফল হবে ‘যেই লাউ, সেই কদু’। এবার সম্ভবত হতে যাচ্ছে একটি পচা কদু।

‘এটা পর্বতে মূষিকের’ চেয়ে বেশি কিছু প্রসব করবে না। এতদিন ধরে যেটা প্রশাসনিক কায়দায় হয়েছে এখন সেটা আইনি কায়দায় হবে। আমরা এ জন্য বলেছি যে ‘যেই লাউ, সেই কদু’—যোগ করেন নজরুল ইসলাম।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, পচা কদু এ জন্য বলছি যে খসড়া আইনে প্রস্তাব করা হয়েছে, সরকারি চাকরির দীর্ঘ অভিজ্ঞতা ছাড়া কেউ এটার সদস্য হতে পারবেন না। অর্থাৎ সিভিল সোসাইটির কেউ অথবা কোনও শিক্ষাবিদ, আইনজ্ঞ কেউ সদস্য হতে পারবেন না। দুনিয়ার কোথায় এরকম বিধিনিষেধ আছে?

খসড়া আইনের সমালোচনা করে নজরুল ইসলাম খান বলেন, বিনা ভোটের অনির্বাচিত একটি অবৈধ সরকারের কাছ থেকে জনগণ এরচেয়ে বেশি কিছু প্রত্যাশা করে না। জনগণ মনে করেন, একটি নিরপেক্ষ, স্বাধীন, যোগ্য নির্বাচন কমিশন গঠনের নৈতিক যোগ্যতা ও সামর্থ্য আছে শুধু একটি নির্বাচিত সরকারের।

নজরুল ইসলাম খান বলেন,  আমরা তো এই সরকারের এবং এই সরকারি প্রশাসনের অধীনে নির্বাচন করতে রাজি না। যারা জনগণের ভোটে নির্বাচিত না তারা গণবিরোধী এবং তাদের সাজানো যে প্রশাসন তার অধীনে কোনও নির্বাচনে আমরা যাবো না।

ইসি গঠনে রাষ্ট্রপতির সংলাপকে ‘অর্থহীন’ দাবি করে বিএনপির এ নেতা বলেন, রাষ্ট্রপতির সঙ্গে যারা সংলাপে অংশ নিয়ে বিভিন্ন প্রস্তাব দিয়েছেন তাদের যেমন ক্ষমতা নেই, রাষ্ট্রপতিরও ক্ষমতা নেই। সংলাপে কোনো কিছু অর্জিত হয়নি। কাজেই সংলাপের জায়গায় সংলাপ, সিদ্ধান্তের জায়গায় সিদ্ধান্ত।

সম্প্রতি খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক উপদেষ্টার পদ ও নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির পদ থেকে অব্যাহতি পাওয়া নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচনের স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী তৈমূর আলম খন্দকারকে দলীয় পদ ফিরিয়ে দেওয়া হবে কি না, সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নে নজরুল ইসলাম খান বলেন, এ বিষয়ে বিএনপিতে এখনো কোনো চিন্তাভাবনা নেই।

নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচন নিয়ে বিএনপির মূল্যায়ন সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, নির্বাচন একটি দরকারি জিনিস। কিন্তু নির্বাচনের নামে যদি নির্বাচনী প্রহসন চলে তাহলে সমালোচনা থাকবেই।

আগামীনিউজ/বুরহান