Dr. Neem
Dr. Neem Hakim

বাংলাদেশ- ভারত মৈত্রী দিবসে ওয়ান বাংলাদেশের র‌্যালি


আগামী নিউজ | বাকৃবি প্রতিনিধি প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৬, ২০২১, ০৭:০৬ পিএম
বাংলাদেশ- ভারত মৈত্রী দিবসে ওয়ান বাংলাদেশের র‌্যালি

ছবিঃ আগামী নিউজ

সোমবার (৬ ডিসেম্বর) বাংলাদেশ ও ভারতের ঐতিহাসিক মৈত্রী দিবস। ১৯৭১ সালের এই দিনে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দিয়েছিল ভারত। ৫০ বছর পূর্তিতে বাংলাদেশ- ভারত মৈত্রী দিবস উপলক্ষে র‌্যালি করেছে ওয়ান বাংলাদেশ ময়মনসিংহ জেলা কমিটি। সোমবার বিকেল ৪ টায় বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

লাইব্রেরির সামনে থেকে একটি র‌্যালি বের হয়। এরপর র‌্যালিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে আবার লাইব্রেরির সামনে এসে শেষ হয়। এর পর একটি সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

ওয়ান বাংলাদেশ ময়মনসিংহ জেলা কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ মনিরুজ্জামানের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. মো. আজহারুল ইসলামের সঞ্চালনায় এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, ওয়ান বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি এবং বাকৃবি ছাত্রবিষয়ক উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. এ. কে. এম জকির হোসেন, বাকৃবি রিসার্স সিস্টেমের পরিচালক অধ্যাপক ড. আবু হাদী নূর আলী খান, সহকারি প্রক্টর সহযোগী অধ্যাপক ড. মো. শফিকুল ইসলাম, সহযোগী অধ্যাপক ড. আফরিনা মুস্তারি, সহযোগী অধ্যাপক ড. মো. রিজওয়ানুল হক,  কৃষি ব্যবসা এবং বিপণন বিভাগের লেকচার মো. শিশির আহমেদসহ আরো অনেকে।

এসময় বক্তরা বলেন, ভারত মুক্তিযুদ্ধের প্রথম থেকে বাংলাদেশেকে সাহায্য করেছে। মুক্তিযুদ্ধাদের প্রশিক্ষণ, শরণার্থীদের আশ্রয় দান এবং সর্বোপরি সরাসরি যুদ্ধেও অংশ নেয় তারা। এরপর স্বাধীন দেশ হিসেবে স্বীকৃতিও প্রদান করে। শুধু মুক্তিযুদ্ধে নয়, বিভিন্ন বিষয়ে বাংলাদেশকে সাহায্য করে আসছে ভারত। আজ ভারত-বাংলাদেশ বন্ধুত্বের ৫০ বছর পূর্তি হয়েছে। গত মার্চ মাসে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর বাংলাদেশ সফরের সময় দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছিলেন যে ৬ ডিসেম্বরকে মৈত্রী দিবস হিসেবে উদযাপন করার এবং তারই ধারাবাহিকতায় এ বছর ৬ ডিসেম্বর দুই দেশে মৈত্রী দিবস হিসেবে পালিত হচ্ছে স্বাধীনতার সময় থেকে দুটি দেশ যে ঐক্যের ভিত্তিতে নিজেদের সম্পর্ক এগিয়ে নিয়ে চলেছে তা আজ পর্যন্ত বিদ্যমান রয়েছে। সব সময় এভাবেই ভারত পাশে থাকবে আশা করি।

আগামীনিউজ/এসআইএস