Dr. Neem on Daraz
Dr. Neem Hakim

মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি ভাস্কর্য ইবির ‘মুক্ত বাংলা’


আগামী নিউজ | কুষ্টিয়া প্রতিনিধি প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৩, ২০২১, ০৪:৫২ পিএম
মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি ভাস্কর্য ইবির ‘মুক্ত বাংলা’

ছবিঃ আগামী নিউজ

মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসকে স্মরণীয় করে রাখতে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে তৈরি করা হয়েছে স্মৃতি ভাস্কর্য ‘মুক্ত বাংলা’। ১৯৯৬ সালের ১৬ ডিসেম্বর ভাস্কর্যটির ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন তৎকালীন ভিসি প্রফেসর ড. মুহাম্মদ ইনাম-উল-হক। রশীদ আহমেদ ভাস্কর্যের স্থাপত্য ও নকশা শিল্পী। ভাস্কর্যটি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে প্রবেশের পর হাতের ডানপাশে অবস্থিত।

ভাস্কর্যটি মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি নিয়ে সাতটি স্তম্ভের উপর মুষ্টিবদ্ধ হাতে একটি রাইফেল ধরা অবস্থায় দাঁড়িয়ে আছে। সাতটি স্তম্ভের অর্থ হলো সাত সদস্য বিশিষ্ট মুজিবনগর মন্ত্রিসভার প্রতীক। স্তম্ভের উপর মুক্তিযুদ্ধের হাতিয়ার একটি দৃঢ় মুষ্টিবদ্ধ হাতে ধরা রাইফেল। প্রতিটি স্তম্ভ বিমূর্ত প্রসারিত হাত ধরা-ধরি উল্লাসিত অবয়বে ইসলামী স্থাপত্য ভিত্তিক কারুকার্যে গঠিত। আর লাল রং দিয়ে বোঝানো হয়েছে চোখে লাল সূর্যের বিজয় প্রত্যাশা।

পুরো কাঠামোটি সাতটি স্তম্ভ সম্বলিত একটি অর্ধ-উদিয়মান সূর্য। স্তম্ভের মূল মেঝে দিয়ে বোঝানো হয়েছে মুজিব নগরের সরকার গঠনের সনদ। মোজাইক নীল টাইলসের অর্থ হল শান্তি। উপর থেকে দ্বিতীয় ধাপে কালো রংয়ের পাথর বসানো এর অর্থ হলো শোক দুঃখ। উপর থেকে তৃতীয় ধাপে সাদা রংয়ের অর্থ হলো সন্ধি ও যোগাযোগ। বেদির উপর থেকে ৪র্থ ধাপ লাল সিরামিক বড় ইট দিয়ে তৈরি এর অর্থ আন্দোলন ও যুদ্ধ। সবার নিচে দেখা যাবে বিস্তৃত টাইলসে ইট বসানো, যার অর্থ হলো লাগাতার আন্দোলন। ভাস্কর্যের পরিকল্পনা ধাপে ধাপে বাস্তবায়িত হয়েছে তাই এর নামকরণ ‘মুক্ত বাংলা’ করা হয়েছে। প্রতি বছর মহান মুক্তিযুদ্ধের স্বরণে বিজয় দিবসে এই ‘মুক্ত বাংলা’য় পুষ্পস্তবক অর্পণ করে বিশ্ববিদ্যালয় পরিবার।

আগামীনিউজ/নাসির