Dr. Neem
Dr. Neem Hakim

 ব্রিটিশরা নেশাগ্রস্ত করেছে চা, চিনি আর তামাকে ইহুদিরা করছে কোমল পানীয় আর সোশ্যাল মিডিয়ায়


আগামী নিউজ | ড. নিম হাকিম প্রকাশিত: জুন ১৯, ২০২১, ১০:০৭ পিএম
 ব্রিটিশরা নেশাগ্রস্ত করেছে চা, চিনি আর তামাকে  ইহুদিরা করছে কোমল পানীয় আর সোশ্যাল মিডিয়ায়

ফাইল ছবি

বিশ্ববাসীকে ব্রিটিশরা নেশাগ্রস্ত করেছে চা, চিনি আর তামাকে আর ইহুদিরা করছে কোমল পানীয় আর সোশ্যাল মিডিয়ায়। প্রবাদ আছে- সূর্যোদয় ও সূর্যাস্ত যেতনা যেখানে ব্রিটিশদের রাজ্য বিস্তৃত ছিলনা।  ব্রিটিশরা এত বিশাল সাম্রাজ্য শুধু শক্তির জোড়েই শাসন করে নাই, তাদের ছিল এমন অনেক গোপন কৌশল যা বিশ্ববাসী তখন মোটেও কল্পনা করেনাই। তারা মানুষকে কূটকৌশলে এমন কিছুতে  আকৃষ্ট বা মোহগ্রস্থ করে রেখেছিল যে, তারা যেন বিপ্লবী না হয়ে রাষ্ট্রের প্রতি অনুগত থাকে।  মহোগ্রস্থ করার জন্য তারা যে  মোক্ষম অস্ত্র ব্যবহার করেছিল তা হল- চা, চিনি আর তামাক। বিনা পয়সায় ও ব্রিটিশ্রা এসব খাইয়েছে মানুষ কে শত শত বছর। আজ ও বিশ্ববাসী চা , চিনি আর তামাকের নেশায় আসক্ত ।

মানুষের যত প্রকার রোগব্যধির উদ্ভব হয় তার সিংহ ভাগের জন্য দায়ী এই তিন উপাদান। ডায়াবেটিস থেকে শুরু করে নিরাময়হীন ক্যান্সারের উৎস ও রয়েছে এসব উপাদানে যা বলার অপেক্ষা রাখেনা।

এখন ব্রিটিশ রাজ্যের ব্যাপ্তি সারা বিশ্বব্যাপী নেই কিন্তু তাদের চাপিয়ে দেয়া শ্লথগতির ভয়াবহ ক্ষতিকর বিষাক্ত নেশাজাতীয় খাদ্য ও পানীয়ের প্রচলন এবং তার ক্ষতি বহন করছে  বিশ্ব ।

 ইহুদীরা একটি ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠী । কিন্তু বুদ্ধিমত্তার জোড়ে আর ইউরোপ-আমেরিকার মদদে তারা গ্রাস করছে ফিলিস্তিনিদের ভুখন্ড। ব্রিটিশদের ভু-খন্ডগত উপনিবেশ বিলুপ্ত হয়েছে কিন্তু জন্ম নিয়েছে নব্য প্রযুক্তিগত উপনিবেশবাদ ইসরাইল নামক রাষ্ট্র । তারা প্রযুক্তিগত দিক দিয়ে এতই শক্তিশালী যে, কোন না কোন কৌশলে পৌঁছে গেছে মানুষের দোড় গোড়ায়। পৃথিবীর নামকরা সব প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়া তাদের কব্জায়। শুধু তাই নয় পুরো পৃথিবীর অর্থনীতি ও তারাই নিয়ন্ত্রণ করছে ।

 কোমল পানীয় যা ইহুদীদের সংযোজন পানীয় জগতে। এই কোমল পানীয় একবার পান করা শুরু করলে তা আর সহজে ছাড়া যায়না। ধীরগতির নেশাজাতীয় উপাদান থাকায় মানুষ আস্তে-আস্তে আসক্ত হয়ে পড়ে এই পানীয়ের নেশায়। সারা দুনিয়ায় কত বিলিয়ন ডলারের কোমল পানিয় বিক্রি হয় তার পরিসংখ্যান নিলেই বুঝা যাবে মানুষ কিভাবে জড়িয়ে পড়েছে এই নেশায় অথচ এতে কোনই উপকার নাই ক্ষতি ছাড়া।

 সোশ্যাল মিডিয়া নামক  সহজল্ভ্য  সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম যা গ্রাস করেছে পুরো দুনিয়া তাও ইহুদীদের সৃষ্টি । সমাজের আবালবৃদ্ধ বনিতা সবাইকে নেশাগ্রস্থ করছে এই মিডিয়া। মানুষ বিশেষ করে যুব সমাজ মারাত্মক ভাবে আসক্ত হয়ে পড়ছে এই মিডিয়ায় ফলে তাদের সৃজনশীল উৎপাদনশীলতা নষ্ট হয়ে যাচ্ছে বলে গবেষক মনে করছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের নামে যুবসমাজ জড়িয়ে পরছে নানা সামাজিক অপরাধে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম নামধারী এসব মিডিয়া দিয়ে ইহুদীরা দখলে নিয়েছে পুরো পৃথিবী। 

কোমল পানীয় আর  সোশ্যাল মিডিয়া চা, চিনি আর তামাকের চেয়েও ভয়ানক নেশা বলে মনে করছেন অনেক বিজ্ঞানী। কোমল পানীয় আর  সোশ্যাল মিডিয়ায় আসক্তির কারনে মানসিক ও শারিরিক  রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যাচ্ছে, মানুষ নুতন নুতন রোগব্যধিতে আক্রান্ত হচ্ছে এবং মানুষের কর্মক্ষমতা কমে যাচ্ছে যা সমগ্র মানবজাতির জন্য অশনিসংকেত।