Dr. Neem on Daraz
Dr. Neem Hakim

যমজ দুই বোনকে বিয়ে করলেন যুবক


আগামী নিউজ | আন্তর্জাতিক ডেস্ক প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৫, ২০২২, ০১:১১ পিএম
যমজ দুই বোনকে বিয়ে করলেন যুবক

ঢাকাঃ বাবার মৃত্যুর পর অসহায় মা ও দুই বোনের পাশে এসে দাঁড়িয়েছিলেন অতুল নামের এক যুবক। মায়ের অসুস্থতার সময় বারবার নিজের গাড়িতে করে হাসপাতালে নিয়ে গেছেন। তাছাড়া বিভিন্নভাবে দুই বোন পিঙ্কি ও রিঙ্কির দিকেও সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছিলেন অতুল।

স্বাভাবিকভাবেই অতুলের সহৃদয়তায় মন দিয়ে বসেন যমজ দুই বোন। তবে এটা নিয়ে দুই বোনের মধ্যে কোনো গন্ডগোল হয়নি, কেউ কারও জন্য ভালবাসার ত্যাগও করেননি, বরং অতুলকে একসঙ্গে বিয়ে করলেন দুই বোন। আর তাদের বিয়েতে সমর্থন জানিয়েছে দুই পরিবার। অভিনব এই ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের মুম্বাইয়ে।

একই ব্যক্তির সঙ্গে দুই বোনের বিয়ের ভিডিও বর্তমানে সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল। নেটিজেনদের একাংশ যেমন এই বিয়ে নিয়ে ট্রল করতে ব্যস্ত, তখন অনেকেই অতুলকে ‘ভাগ্যবান’ বলছেন। কেউ লিখেছেন, ‌‘ছেলেটির ভাগ্য দেখে হাসব নাকি কাঁদব, ভেবে পাচ্ছি না।’ আবার কেউ দুই বোনের পারস্পরিক বিশ্বাস ও ভালবাসাকে ‘স্যালুট’ জানিয়েছেন।

জানা যায়, মহারাষ্ট্রের সোলাপুর জেলার মালশিরাস তালুকের বাসিন্দা অতুল। মুম্বাইয়ে তার ট্রাভেল এজেন্সির ব্যবসা রয়েছে। আর মুম্বইয়ের বাসিন্দা পিঙ্কি ও রিঙ্কি। যমজ এই দুই বোন বাণিজ্যনগরীরই তথ্য-প্রযুক্তিরকর্মী। তাদের বাবার মৃত্যুর পর মা অসুস্থ হলে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার জন্য অতুলের থেকেই গাড়ি নিতেন পিঙ্কি ও রিঙ্কি।

এ জন্যই অতুলের সঙ্গে তাদের পরিচয়। ধীরে-ধীরে তাদের মধ্যে পারিবারিক সম্পর্ক গড়ে ওঠে। গাড়ি ভাড়া দেওয়ার পাশাপাশি যমজ ওই দুই বোনের পাশে এসে দাঁড়ান অতুল। নানাভাবে তাদের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন। আর তার এই সহৃদয়তায় অতুলকে মন দিয়ে বসেন দুই বোনই।

ছোট থেকেই একসঙ্গে বড় হয়েছেন পিঙ্কি ও রিঙ্কি। বিয়ের পরেও তারা একসঙ্গে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। তবে দুজনেই যে একজনকে মন দিয়ে বসবেন, তা হয়ত কেউ কখনো ভাবেননি। তবে যখন তারা জানতে পারলেন যে তাদের ভালবাসার মানুষ একজনই, তখন দুজনেই অতুলকে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেন। তাদের সিদ্ধান্তে অমত করেননি যমজ দুই বোনের মা এবং অতুলের পরিবারও। ফলে একেবারে রীতি-রেওয়াজ মেনে বিয়ে করেন তারা।

তবে দুই বোন একই ব্যক্তিকে বিয়ে করলেও আইনের বিধি নিষেধের কাছে ফাঁসল যমজ বোনের ভালবাসা। হিন্দু বিবাহ আইন অনুসারে, কোনো ব্যক্তির প্রথম স্ত্রী জীবিত থাকাকালীন দ্বিতীয় বিয়ে করা যায় না। তাই দুই বোনকে বিয়ে করা নিয়ে অতুলের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। ৪৯৪ ধারা অনুসারে অতুলের বিরুদ্ধে অকলুজ থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। এমতবস্থায় পিঙ্কি ও রিঙ্কির ভালবাসার মানুষের স্বীকৃতি টিকবে নাকি বাতিল হবে এমন প্রশ্ন ঘুরছে নেটিজেনদের মাথায়।

বুইউ