হিমালয়ে তুষারধসে ১০ পর্বতারোহী নিহত


আগামী নিউজ | আন্তর্জাতিক ডেস্ক প্রকাশিত: অক্টোবর ৫, ২০২২, ১২:১৩ পিএম
হিমালয়ে তুষারধসে ১০ পর্বতারোহী নিহত

ঢাকাঃ ভারতের উত্তরাখণ্ডে তুষারধসের কবলে পড়ে ১০ পর্বতারোহীর মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় এখনও নিখোঁজ রয়েছেন ১৮ জন। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

মঙ্গলবার সকালে উত্তরাখণ্ডের উত্তরকাশীর পর্বতারোহণ প্রশিক্ষণকেন্দ্র ‘নেহরু ইনস্টিটিউট অব মাউন্টেনিয়ারিং’ (নিম)-এর ৩৪ জন শিক্ষার্থী পর্বতারোহী ও সাত প্রশিক্ষক তুষারধসের কবলে পড়েন। প্রায় ১৬ হাজার ফুট উচ্চতায় তুষারধসে চাপা পড়া ১০ জনের দেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ১৮ জন এখনও নিখোঁজ। মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

উত্তরাখণ্ড পুলিশের ডিজি অশোক কুমার বলেছেন, মঙ্গলবার সকাল ৯টা নাগাদ প্রায় ১৬ হাজার ফুট উচ্চতার তুষারধসের খবর পাওয়া যায়। এর পরেই রওনা হয় বিমানবাহিনীর হেলিকপ্টার।

তিনি বলেন, এ পর্যন্ত আট পর্বতারোহীকে উদ্ধার করে ১৩ হাজার ফুট উচ্চতায় একটি হেলিপ্যাডে নামিয়ে আনা হয়। তারপরে হেলিকপ্টারে তাদের দেহরাদূনে আনা হয়েছে। অন্য পর্বতারোহীদের খোঁজ চলছে।

এনআইএমের অধ্যক্ষ কর্নেল অমিত বিষ্ট জানিয়েছেন, মঙ্গলবার রাত পর্যন্ত দুর্ঘটনাস্থলে ১০ জনের মরদেহ দেখা গেছে, যার মধ্যে চারটি উদ্ধার করা হয়েছে।

তবে অন্ধকার ও প্রতিকূল আবহাওয়ার কারণে উদ্ধারকাজ বন্ধ রাখা হয়েছিল। বুধবার থেকে তা আবারও শুরু করা হবে। উদ্ধার অভিযানে অংশ নিচ্ছেন ভারতীয় বিমান বাহিনীর সদস্যরাও।

বুধবার সকালে উত্তরকাশী দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা দেবেন্দ্র পাটওয়ালের উদ্ধৃতি দিয়ে পিটিআই জানিয়েছে, দুর্ঘটনাস্থল থেকে আট পর্বতারোহীকে উদ্ধার করা হয়েছে।

তুষারধসের ঘটনায় নিখোঁজ ২৮ জনের নামের একটি তালিকা প্রকাশ করেছে উত্তরাখণ্ড পুলিশ। এদের মধ্যে পশ্চিমবঙ্গ, দিল্লি, তেলেঙ্গানা, তামিলনাড়ু, কর্ণাটক, আসাম, হরিয়ানা, গুজরাট, হিমাচল প্রদেশ, উত্তরাখণ্ড ও উত্তর প্রদেশের প্রশিক্ষণার্থীদের নাম রয়েছে।

এ ঘটনায় গভীর শোকপ্রকাশ করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তার উদ্ধৃতি দিয়ে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, এটি দুঃখজনক যে, এনআইএমের পর্বতারোহণ অভিযানে আমরা বেশ কিছু মূল্যবান প্রাণ হারিয়েছি। শোকাহত পরিবারগুলোর প্রতি সমবেদনা। উদ্ধার অভিযান চলছে এবং কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে পরিস্থিতি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে।

এমবুইউ