Dr. Neem on Daraz
Dr. Neem Hakim

সরকারকে ৬ দিনের আল্টিমেটাম ইমরান খানের


আগামী নিউজ | আন্তর্জাতিক ডেস্ক প্রকাশিত: মে ২৬, ২০২২, ১১:১৪ এএম
সরকারকে ৬ দিনের আল্টিমেটাম ইমরান খানের

ঢাকাঃ পাকিস্তান তেহরিক-ই ইনসাফ (পিটিআই) এর ডাকা ‘আজাদি মার্চ’ এর কারণে উত্তাল অবস্থা বিরাজ করছে পাকিস্তানে। কয়েকটি শহরের পর রাজধানী ইসলামাবাদে পৌঁছে নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করতে ৬ দিনের আল্টিমেটাম দিয়েছেন দলের প্রধান ইমরান খান। পরিস্থিতি কঠিন হয়ে পড়ায় সেনা তলব করেছে সরকার।

ইসলামাবাদের নবম অ্যাভিনিউতে বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য দিয়েছেন পিটিআইয়ের চেয়ারম্যান ইমরান খান বলেন, সংসদ ভেঙে নির্বাচন ঘোষণা না দেওয়া পর্যন্ত আমি এখানে অবস্থানের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম। কিন্তু গত ২৪ ঘণ্টায় আমরা দেখলাম সরকার জাতিকে নৈরাজ্যের দিকে নিয়ে যাচ্ছে। সরকার জাতিকে বিভক্ত করতে চায় বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

জিও নিউজের খবরে বলা হয়েছে, সরকারকে বিধানসভা ভেঙে দিতে এবং নির্বাচন ঘোষণা করার জন্য ছয় দিনের আলটিমেটাম দিয়েছেন পিটিআই চেয়ারম্যান ইমরান খান। জিন্নাহ অ্যাভিনিউতে ‘আজাদি মার্চ’ এর অংশগ্রহণকারীদের উদ্দেশে পিটিআই চেয়ারম্যান বলেন, তিনি খাইবার পাখতুনখোয়া থেকে ৩০ ঘণ্টা ভ্রমণের পর ইসলামাবাদে পৌঁছেছেন।

ইমরান খান বলেন, ‘সরকার আমাদের আজাদি মার্চকে দমন করার জন্য সব রকমের চেষ্টা করেছে, তারা শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদে টিয়ারগ্যাস ব্যবহার করেছে, আমাদের বাড়িতে অভিযান চালানো হয়েছে এবং বাড়ির গোপনীয়তা লঙ্ঘন করা হয়েছে। তবে আমি জাতিকে দাসত্বের ভয় থেকে মুক্ত হতে দেখেছি।’

তিনি বলেছেন যে, করাচিতে তিনজন পিটিআই কর্মী প্রাণ হারিয়েছেন এবং দুই কর্মীকে রাভি সেতু থেকে ফেলে দেওয়া হয়েছে। আরও হাজার হাজার কর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

দেশে নতুন নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করার জন্য সরকারকে সময়সীমা প্রদান করে ইমরান খান বলেছেন, ‘আমদানি করা সরকারের জন্য আমার বার্তা হলো- বিধানসভা ভেঙে দেওয়া এবং নির্বাচন ঘোষণা করা। অন্যথায় আমি ছয় দিন পর আবার ইসলামাবাদে ফিরে আসব।’

ইসলামাবাদে এমন ঘোষণা দিয়ে ইমরান খান বানি গালার উদ্দশ্যে রওনা হয়েছেন। সেখানে একটি বড় জনসমাবেশে অংশ নেবেন তিনি।

এর আগে পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদে সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের দল পিটিআইকে সমাবেশ করার সুযোগ দিতে সরকারের প্রতি নির্দেশনা জারি করে দেশটির সর্বোচ্চ আদালত।

বুধবার (২৫ মে) পিটিআইকে রাজধানীর এইচ-৯ ও জি-৯ এলাকার মধ্যে সমাবেশ করার অনুমতি দেয় পাকিস্তান সুপ্রিম কোর্ট।

সরকারের পদত্যাগ ও দ্রুত জাতীয় নির্বাচনের দাবিতে সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের নেতৃত্বে ইসলামাবাদ অভিমুখে আজাদি মার্চ শুরু হয় বুধবার। কিন্তু দেশটির বর্তমান সরকার সেখানের রাস্তা বন্ধ করে দিলে পিটিআইয়ের কর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

গত মঙ্গলবার পিটিআইয়ের সমর্থকদের বিরুদ্ধে এক পুলিশ কর্মকর্তাকে হত্যার অভিযোগ ওঠে। এরপর দেশটির সরকার ইমরান খানের মার্চকে নিষিদ্ধ করে।

এমবুইউ