Dr. Neem on Daraz
Dr. Neem Hakim

ইয়েমেনে সৌদি জোটের বিমান হামলায় নিহত ১৪


আগামী নিউজ | আন্তর্জাতিক ডেস্ক প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৮, ২০২২, ০৩:১৬ পিএম
ইয়েমেনে সৌদি জোটের বিমান হামলায় নিহত ১৪

ছবিঃ সংগৃহীত

ঢাকাঃ ইয়েমেনের রাজধানী সানায় সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের বিমান হামলার ১৪ জনের বেশি মানুষ নিহত হয়েছে। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্স।

প্রতিবেদনে বলা হয়, নিহতদের সবাই একই ভবনের বাসিন্দা। সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমে সানায় হুথি বিদ্রোহীদের ঘাঁটিসহ বিভিন্ন অবস্থানে সৌদি সামরিক জোটের বিমান হামলার খবর নিশ্চিত করা হয়েছে।

রয়টার্স জানিয়েছে, রাজধানী সানায় অন্যান্য লক্ষ্যবস্তুর পাশাপাশি সাবেক একজন সামরিক কর্মকর্তার বাড়িকেও হামলার লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করা হয়। এতে ওই সামরিক কর্মকর্তা, তার স্ত্রী, তাদের ২৫ বছর বয়সী সন্তানসহ পরিবারের আরও একাধিক সদস্য নিহত হয়। এছাড়া সেখানে অজ্ঞাত আরও বেশ কয়েকজন নিহতের খবর পাওয়া গেছে।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলোতে তাৎক্ষণিকভাবে ১৪ জন নিহতের কথা বলা হলেও এ হামলায় ২০ জন নিহতদের কথা জানিয়েছে হুথি বিদ্রোহীরা। টুইটারে দেওয়া পোস্টে হুথি বিদ্রোহীদের পরিচালিত প্রশাসনের উপ পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ তথ্য জানিয়েছেন।

হুথি পরিচালিত আল মাসিরাহ টিভি জানিয়েছে, হামলায় অনেক ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। অন্তত ডজনখানকে মানুষ নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও ডজনখানেক মানুষ।

২০১৫ সালে ইয়েমেন যুদ্ধে হস্তক্ষেপ করে সৌদি আরব এবং আরব আমিরাত। তারা সে সময় প্রেসিডেন্ট আব্দ রাব্বু মানসুর হাদি সরকারকে ক্ষমতায় ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চালান। হুথি বিদ্রোহীরা ২০১৪ সালে রাজধানী সানা এবং উত্তরাঞ্চলের কিছু অংশ দখল করে নেওয়ার পর তিনি পালিয়ে যান।

২০১৯ সালে সংযুক্ত আরব আমিরাত ইয়েমেন থেকে তাদের সৈন্য কমিয়ে নিলেও ইয়েমেনি বাহিনীকে অস্ত্র এবং প্রশিক্ষণ দিয়ে যাচ্ছে।

সোমবার (১৭ জানুয়ারি) আরব আমিরাতের রাজধানী আবু ধাবিতে সন্দেহভাজন ড্রোন হামলায় তিনটি তেলের ট্যাঙ্কারে বিস্ফোরণ ঘটে। এতে তিনজন নিহত এবং আরও ছয়জন আহত হয়। সোমবার কর্তৃপক্ষ জানায়, ইয়েমেনের হুথি বিদ্রোহীরা ওই হামলা চালিয়েছে।

বাণিজ্যিক এলাকা মুসাফ্ফারের কাছে তিনটি জ্বালানি ট্যাঙ্কারে বিস্ফোরণ ঘটে। এছাড়া আবু ধাবি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নির্মাণ সাইটের কাছে আগুন লেগেছে। পুলিশ জানায়, নিহতদের মধ্যে দুজন ভারতীয় এবং একজন পাকিস্তানি নাগরিক।

আগামীনিউজ/বুরহান