Agaminews
Dr. Neem Hakim
Dr. Neem Hakim

ভারতে একদিনে ৫২ হাজারেরও বেশি করোনা শনাক্ত


আগামী নিউজ | আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক প্রকাশিত: জুলাই ৩০, ২০২০, ০৫:২১ পিএম
ভারতে একদিনে ৫২ হাজারেরও বেশি করোনা শনাক্ত

ছবি : সংগৃহীত

ঢাকা : গত ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে ভারতের সরকারি হিসাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে অর্ধ লাখেরও বেশি।

বৃহস্পতিবার সকালে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুসারে, গত ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড ৫২ হাজার ১২৩ জন রোগী শনাক্তের কথা জানানো হয়েছে, এতে দেশটিতে মোট রোগীর সংখ্যা ১৫ লাখ ৮৩ হাজার ৭৯২ জনে দাঁড়িয়েছে।

বিশ্বের সর্বোচ্চ করোনা আক্রান্ত দেশের তালিকায় যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রাজিলের পর তৃতীয় দেশ ভারত।

গত  ১৭ জুলাই ১০ লাখ রোগীর দুঃখজনক মাইলফলক পার করেছিল দেশটি, তারপর মাত্র ১৩ দিনের মধ্যেই সংখ্যাটি ১৬ লাখের কাছাকাছি পৌঁছে গেল।

আনন্দবাজারের তথ্য অনুযায়ী, দেশটিতে প্রথম এক লাখ কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছিল ১১০ দিনে। মার্চের শেষে ভারতজুড়ে দেয়া কঠোর লকডাউনের কারণেই দেশটিতে মে মাসের মাঝামাঝি পর্যন্ত জনসংখ্যা অনুপাতে রোগী মিলছিল সামান্যই। কিন্তু লকডাউন শিথিলের পর থেকে পরিস্থিতি একেবারেই পাল্টে যায়।

এ পর্যন্ত ১০ লাখ ২০ হাজার ৫৮২ জন সুস্থ অথবা হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ায় রোগীর বর্তমান সংখ্যা পাঁচ লাখ ২৮ হাজার ২৪২ জনে দাঁড়িয়েছে। সুস্থ হওয়ার হার ৬৪ দশমিক ৪৪ শতাংশ।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পরিসংখ্যা অনুযায়ী, শেষ ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে মৃত্যু হয়েছে আরও ৭৭৫ জনের। এদের নিয়ে মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৪ হাজার ৯৬৮ জনে।
এরমধ্যে দেশটির সরকার ‘রেড জোন’ ঘোষিত এলাকাগুলোর বাইরে ১ অগাস্ট থেকে আরও কার্যক্রম চালু করার বিষয়ে নির্দেশনা জারি করেছে। ওই দিন থেকে ভারতে লকডাউন শিথিলের তৃতীয় পর্ব শুরু হবে।

করোনাভাইরাস সংক্রমণের বিস্তার রোধে ২৫ মার্চ ভারতজুড়ে কঠোর লকডাউন ঘোষণা করেছিল দেশটির সরকার। পরে মে মাসে লকডাউনের মেয়াদ ৩০ জুন পর্যন্ত বাড়ানোর ঘোষণা দিয়ে তিন ধাপে লকডাউন শিথিল করা হবে বলে জানান দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

প্রথম ধাপ আনলক ওয়ানে ৮ জুন থেকে বহু জায়গাতেই খুলে দেওয়া হয় শপিংমল, হোটেল, রেস্তোরাঁ, ধর্মীয় স্থান। সব নিষেধাজ্ঞা এভাবে ধাপে ধাপে তুলে নেয়া শুরু হয়।

সরকারি ঘোষণা অনুযায়ী, ১ অগাস্ট থেকে আনলক থ্রি কার্যকর শুরু হবে কিন্তু রেড জোনগুলোতে লকডাউন ৩১ অগাস্ট পর্যন্ত বজায় থাকবে। আনলক থ্রি কার্যকর হওয়ার পর থেকে রাতজুড়ে কারফিউ তুলে নেওয়া হবে। এর আওতায় ৫ অগাস্ট থেকে করোনাভাইরাস স্বাস্থ্যবিধি মেনে জিম ও যোগাব্যায়াম কেন্দ্রগুলো খোলা যাবে।
কিন্তু স্কুল, কলেজ, মেট্রো রেল সার্ভিস, সিনেমা হল ও বার ৩১ অগাস্ট পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। রাজনৈতিক ও ধর্মীয় সমাবেশও নিষিদ্ধ থাকবে। সূত্র : এনডিটিভি

 

আগামীনিউজ/এসপি
 

Dr. Neem