Dr. Neem on Daraz
Dr. Neem Hakim

মুক্তি পেল ‘মিশন এক্সট্রিম’


আগামী নিউজ | বিনোদন ডেস্ক প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৩, ২০২১, ০১:১১ পিএম
মুক্তি পেল ‘মিশন এক্সট্রিম’

ছবিঃ সংগৃহীত

ঢাকাঃ করোনাভাইরাসের কারণে দীর্ঘ দিন সিনেমা ব্যবসায় মন্দা চলছে। সিনেমা হলগুলো বন্ধ ছিল প্রায় দেড় বছর। পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হলেও সেভাবে জমছে না দেশের সিনে বাজার। এবার সেই খরা হয়ত কাটতে চলেছে। কেননা আজ শুক্রবার (৩ ডিসেম্বর) মুক্তি পেয়েছে বহুল প্রতীক্ষিত ‘মিশন এক্সট্রিম’।

জানা গেছে, সর্বোচ্চ সংখ্যক প্রেক্ষাগৃহে ‘মিশন এক্সট্রিম’ মুক্তি পেয়েছে। সেসঙ্গে বিদেশেও মুক্তি পাচ্ছে পুলিশ অ্যাকশন থ্রিলার সিনেমাটি। দেশের অর্ধশতাধিক প্রেক্ষাগৃহে এটি মুক্তি পাবে বলে জানিয়েছেন এর নির্মাতা। দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে পর্যায়ক্রমে বাকি হলগুলোতেও ‘মিশন এক্সট্রিম’ চলবে। চার মহাদেশে একযোগে মুক্তি পাচ্ছে ছবিটি। এটা বাংলা ছবির জন্য প্রথম।

প্রদর্শক সমিতি সূত্রে জানা গেছে, মিশন এক্সট্রিমকে কেন্দ্র করে বন্ধ থাকা সিনেমা হলগুলোর মধ্যে ২০টি খুলেছে। করোনার মহামারির কারণে এসব সিনেমা হল বাণিজ্য সফল ছবি পেলে এই সিনেমা হলগুলো আর বন্ধ হবে না।

পরিচালক ফয়সাল আহমেদ গণমাধ্যমকে বলেছেন, শুক্রবার দেশের ৫০টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেতে যাচ্ছে ‘মিশন এক্সট্রিম’। ছবিটি নিয়ে সারা দেশের হল মালিকরা বেশ আগ্রহী। তাদের আগ্রহ দেখে আমরা রীতিমতো অবাক। ৫০ হল ছাড়া আরও অনেক প্রেক্ষাগৃহে সিনেমাটি প্রথম সপ্তাহে চেয়েছিলেন, কিন্তু আমরা ৫০টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি নিশ্চিত করেছি। দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে পর্যায়ক্রমে বাকি হলগুলোতেও ‘মিশন এক্সট্রিম’ চলবে। ছবিটির প্রচারণার আয়োজনও করা হয়েছে ব্যাপকভাবে। দীর্ঘ প্রায় তিন বছর রাজধানীর রাস্তায় দেখা গেল ভ্যান গাড়িতে ছবিটির পোস্টার লাগিয়ে প্রচারণার কাজ চালানো হচ্ছে। আগে দেখা যেত, ছবি মুক্তি মুক্তিকে সামনে রেখে সারা পোস্টারে ছেয়ে যেত। সেটা এখনো ভালোভাবে শুরু হয়নি।

পুলিশ-অ্যাকশন সিনেমা ‘মিশন এক্সট্রিম’ পরিচালনা করেছেন সানী সানোয়ার ও ফয়সাল আহমেদ। এতে অভিনয় করেছেন আরিফিন শুভ, জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী, তাসকিন রহমান, সাদিয়া নাবিলা, সুমিত সেনগুপ্ত, রাইসুল ইসলাম আসাদ, ফজলুর রহমান বাবু, শতাব্দী ওয়াদুদ, মনোজ প্রামাণিক, ইরেশ জাকের, মাজনুন মিজান, সুদীপ বিশ্বাস, সৈয়দ আরেফ, রাশেদ খান অপু, দীপু ইমাম, এহসানুর রহমান, ইমরান শওদাগর প্রমুখ। প্রযোজনা করেছে কপ ক্রিয়েশন।

কিছু দিন আগেই প্রকাশ করা হয়েছে এর ট্রেলার। সেখানে দেখা গেছে চমকপ্রদ কিছু দৃশ্য। পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের কিছু শ্বাসরুদ্ধকর অভিযানের গল্পে নির্মিত হয়েছে সিনেমাটি।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশের বিজয়ের পঞ্চাশ বছর পূর্তিতে ‘মিশন এক্সট্রিম’ মহাসমারোহে মুক্তি পেল দেশের পঞ্চাশ প্রেক্ষাগৃহে। পুরো সিনেমা টিমের জন্য এটি গৌরবের বলে জানিয়েছেন নির্মাতা। গত ১৮ নভেম্বর (বৃহস্পতিবার) খুলনার ‘শঙ্খ’ ও ‘চিত্রালি’ দিয়ে শুরু হয় সিনেমাটির হল বুকিং পর্ব। এরপর একে একে আরও ৪৮ হলে প্রথম সপ্তাহে ‘মিশন এক্সট্রিম’ মুক্তির ব্যাপারটি নিশ্চিত হয়েছে।

কুল নিবেদিত ‘মিশন এক্সট্রিম’ সিনেমাটি পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট তথা ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ‘সিটিটিসি’র কিছু শ্বাসরুদ্ধকর অভিযান থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে নির্মিত। এর গল্প ও চিত্রনাট্য লিখেছেন পুলিশ সুপার (এসপি) সানী সানোয়ার নিজেই। সিনেমাটির সহযোগী প্রযোজক হিসেবে রয়েছে মাইম মাল্টিমিডিয়া ও ঢাকা ডিটেকটিভ ক্লাব।

আগামীনিউজ/বুরহান