রিজার্ভ নিয়ে সমস্যা নেই, সব ব্যাংকে টাকা আছে: প্রধানমন্ত্রী


আগামী নিউজ | জেলা প্রতিনিধি, যশোর প্রকাশিত: নভেম্বর ২৪, ২০২২, ০৪:০৭ পিএম
রিজার্ভ নিয়ে সমস্যা নেই, সব ব্যাংকে টাকা আছে: প্রধানমন্ত্রী

ঢাকাঃ দেশের রিজার্ভে কোনো ধরনের সমস্যা নেই বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেই সঙ্গে তিনি বলেছেন, সব ব্যাংকে পর্যাপ্ত টাকা রয়েছে। সামনের দিনে কোনও সমস্যা হবে না।

বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) বিকেলে যশোরের শামস-উল হুদা স্টেডিয়ামে আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন,  ‘অনেকে এখন রিজার্ভ নিয়ে নানা সমালোচনা করছে। অথচ আমাদের সরকার রিজার্ভ রেকর্ড পরিমাণ বাড়িয়েছে। আরও কোনও সরকার রিজার্ভ বাড়াতে পারেনি। পর্যাপ্ত রিজার্ভ হাতে রেখেই সব কাজ করছি আমরা। রিজার্ভের কোনও সমস্যা নেই, আমাদের সব ব্যাংকে পর্যাপ্ত টাকা রয়েছে। সামনের দিনে কোনও সমস্যা হবে না।’

তিনি বলেন, ‘রিজার্ভ নিয়ে নানা ধরনের সমালোচনা শুনছি। অনেকে প্রশ্ন করেন রিজার্ভ গেলো কোথায়? আমরা তো রিজার্ভ অপচয় করিনি। মানুষের কল্যাণে কাজে লাগিয়েছি। জ্বালানি তেল কিনতে হয়েছে, খাদ্যশস্য কিনেছি। বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছি। করোনার টিকা ও চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করেছি। এসব কাজে রিজার্ভ থেকে খরচ করতে হয়েছে আমাদের। কারণ আমরা সবসময় মানুষের কথা চিন্তা করে উন্নয়ন কর্মকাণ্ড চালাচ্ছি।’ 

সরকারপ্রধান বলেন, ‘যারা জানতে চান রিজার্ভ কোথায় গেলো, তাদের বলছি, রিজার্ভ কোথাও যায়নি। মানুষের কাজে লেগেছে। যেহেতু যুদ্ধ লেগেছে, দাম বেড়েছে সবকিছুর। তারপরও আমরা খরচ করছি, আমদানি করছি; যাতে দেশের মানুষের খাদ্যের যেন ঘাটতি না হয়। কারও কোনও ধরনের সমস্যায় পড়তে না হয়। এজন্য দেশের সব মানুষকে বলে দিয়েছি, কোনও জমি যাতে খালি রাখা না হয়। পারলে একটা মরিচ গাছ লাগান, একটি টমেটো গাছ লাগান। এটি আমাদের সবার উপকারে আসবে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘ব্যাংক থেকে অনেকে টাকা তুলে নিয়ে যাচ্ছেন। ব্যাংক থেকে টাকা তুলে নিয়ে ঘরে রাখলে তো চোরে নিয়ে যাবে। এতে তো চোরের সুযোগ করে দেওয়া হচ্ছে।’

আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, ‘আপনারা ভোট দিয়েছেন। আপনাদের ভোটে নির্বাচিত হয়ে বারবার ক্ষমতায় এসেছি। আপনারা ভোট দিয়েছেন বলেই বাংলাদেশের উন্নয়ন হয়েছে।’

আওয়ামী লীগের আমলে দেশের উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘মানুষের পেটে খাবার ছিল না। মাথা গোঁজার ঠাঁই ছিল না। চিকিৎসার ব্যবস্থা করেছি। আমরা কমিউনিটি ক্লিনিক করেছি। যেখানে বিনা পয়সায় ৩০ ধরনের ওষুধের ব্যবস্থা করেছি। আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশ করেছি। কর্মসংস্থান হয়েছে।’

কিছুদিন ধরেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে গুজব ছড়িয়ে পড়ে যে ব্যাংকে টাকা নেই। বাংলাদেশ শ্রীলঙ্কা হতে যাচ্ছে। সে জন্য অনেকে ব্যাংক থেকে টাকাও তুলে নিচ্ছেন। এমনকি ব্যাংক থেকে টাকা তোলার জন্য হুড়াহুড়ি লেগেছে বলেও সামাজিক মাধ্যমগুলোতে বিভ্রান্তিকর নানা তথ্য ছড়িয়ে পড়েছে। এমন গুজবে কান না দিতে বাংলাদেশে ব্যাংকের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে। এছাড়া কেন্দ্রীয় ব্যাংক, অর্থনীতিবিদ ও ব্যাংকারদের পক্ষ থেকে স্পষ্ট করে বলা হয়েছে- এসব তথ্যের কোনো ভিত্তি নেই। এমন গুজবের মধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও বিষয়টি নিয়ে কথা বললেন।

বুইউ