Dr. Neem
Dr. Neem Hakim

পীরগঞ্জে সহিংসতা: গ্রেপ্তারের আগে সৈকতকে ছাত্রলীগ থেকে বহিষ্কার


আগামী নিউজ | নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশিত: অক্টোবর ২৩, ২০২১, ০৬:৫০ পিএম
পীরগঞ্জে সহিংসতা: গ্রেপ্তারের আগে সৈকতকে ছাত্রলীগ থেকে বহিষ্কার

ছবিঃ সংগৃহীত

রংপুরঃ জেলার পীরগঞ্জের মাঝিপাড়ার সহিংসতার ঘটনায় র‍্যাবের হাতে গ্রেপ্তারের আগেই মো. সৈকত মণ্ডলকে ছাত্রলীগের কমিটি থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে বলে দাবি করেছে রংপুর মহানগর ছাত্রলীগ। 

সৈকত মণ্ডল কারমাইকেল কলেজ ছাত্রলীগের দর্শন বিভাগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। শুক্রবার সৈকত ও রবিউলকে রংপুর থেকে আটক করে র‌্যাব। এর আগেও সাম্প্রদায়িক উস্কানিমূলক পোস্ট দেওয়ায় ক্ষুব্ধ ছিলো সাধারণ নেতা-কর্মীরা। 

গ্রেপ্তারের পর শনিবার (২৩ অক্টোবর) র‌্যাব সদর দপ্তরে আয়োজিত ব্রিফিংয়ে র‍্যাবের পক্ষ থেকে সৈকত মণ্ডলকে পীরগঞ্জের মাঝিপাড়ার হিন্দু পল্লীতে সহিংসতার ঘটনায় অন্যতম হোতা হিসাবে দাবি করা হয়। 

রংপুর মহানগর ছাত্রলীগ শাখার সাধারণ সম্পাদক শেখ আসিফ হোসেন জানান, গত ১৮ অক্টোবর মাঝিপাড়ায় ঘটনায় সরাসরি অংশ নেওয়ার প্রমাণ পাওয়ায় দর্শন বিভাগ শাখা ছাত্রলীগের  সাধারণ সম্পাদকের পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। 

একই ঘটনায় কারমাইকেল শাখা ছাত্রলীগের সহসভাপতি তানজিরুল ইসলামকেও বহিষ্কার করে ছাত্রলীগ।

ছাত্রলীগের কামাইকেল কলেজ শাখার সভাপতি সাইদুজ্জামান সিজার জানান, সৈকত আগে থেকেই ফেসবুকে উস্কানিমূলক পোস্ট দিয়ে আসছিল। বিষয়টি পীরগঞ্জের ঘটনার আগে আমাদের নজরে আসে। এ কারণে মহানগর ছাত্রলীগের পরামর্শক্রমে তাকে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করা হয়।

 

কারমাইকেল কলেজের সাধারণ শিক্ষার্থী ও সংগঠনের সাধারণ নেতাকর্মীর জানান, দর্শন বিভাগের চূড়ান্ত বর্ষের ছাত্র সৈকত মণ্ডল আগে থেকেই সাম্প্রদায়িক মনোভাবাপন্ন। আগেও তার ফেসবুক থেকে ধর্মীয় উস্কানিমূলক পোস্ট দেওয়ায় সহপাঠীরা ক্ষুব্ধ ছিলো।

ফেসবুকে ধর্ম অবমাননার অভিযোগ তুলে গত রোববার রাতে পীরগঞ্জের রামনাথপুর ইউনিয়নের উত্তর পাড়ায় হিন্দু সম্প্রদায়ের অন্তত ২৩টি বাড়িঘরে হামলা চালানো হয়। এতে ক্ষতিগ্রস্ত হয় ৬০টি পরিবার।

এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত তিনটি মামলা হয়েছে। এর মধ্যে মঙ্গলবার সকালে দুটি মামলা করেন পীরগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ইসমাইল হোসেন। ৪১ জনের নামসহ অজ্ঞাতপরিচয় অনেককে আসামি করে হিন্দুদের বাড়িঘরে ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও লুটের ঘটনায় একটি মামলা করেন। আরেকটি মামলা করেছেন একজনকে আসামি করে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে।

এরপর বুধবার রাতে পীরগঞ্জ থানার আরেক এসআই সুপথ হালদার ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দুজনকে আসামি করে তৃতীয় মামলাটি করেন।

পীরগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মাহবুবুর রহমান জানান, এখন পর্যন্ত তিন মামলায় ৫৮ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

আগামীনিউজ/শরিফ