Dr. Neem
Dr. Neem Hakim

পূজার উপহার পচা পণ্য,ক্ষোভে ফেরত দিলেন গ্রহীতারা


আগামী নিউজ | নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশিত: অক্টোবর ১১, ২০২১, ১০:২৪ পিএম
পূজার উপহার পচা পণ্য,ক্ষোভে ফেরত দিলেন গ্রহীতারা

ছবিঃ আগামী নিউজ

কুড়িগ্রামঃ জেলার চিলমারীতে দূর্গাপুজা উপলক্ষ্যে দরিদ্র হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করেছে উপজেলা প্রশাসন। তবে এসব ত্রাণের মধ্যে আলু পঁচা ও চালসহ অন্যান্য সামগ্রী অত্যন্ত নিম্নমানের। ফলে ক্ষোভে ইউএনও অফিসে এসব ত্রাণ ফেরত দিয়েছেন গ্রহীতারা।

কুড়িগ্রামের চিলমারী উপজেলায় এ বছর ৩২টি মন্ডপে দূর্গাপুজা উদযাপন হচ্ছে। পুজা উপলক্ষে কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত মোতাবেক হতদরিদ্র হিন্দু পরিবারের মাঝে তাদের আবেদনের প্রেক্ষিতে রাজস্ব খাতের টাকা ব্যয় করে চাল, ডাল, তেল, আলুসহ বিভিন্ন ত্রাণসামগ্রী দেয়ার প্রস্তুতি নেয়া হয়।

সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সোমবার উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে হলরুমে ১৬০টি পরিবারের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ শুরু হয়। ত্রাণ পেলেও খুশি হতে পারেনি ত্রাণ নিতে আশা পরিবারগুলো।

রাণীগঞ্জ ইউনিয়নের রানু রানী, সুধা রানী, মুকুল চন্দ্র অভিযোগ করে বলেন, বহুদূর থেকে এলাম ত্রাণ নিতে। কিন্তু পঁচা চাল, পঁচা আলু, নিম্নমানের তেল, সয়াবিন তেল না দিয়ে পামওয়েল দেয়া হয়। এসব সামগ্রী নিয়ে কী করমো? হামরা গরীব বলে কি মানুষ নই।

ভানু রায় (৭০) বয়সের ভারে ঠিক মতো চলতে পারেন না। নিম্নমানের চাল আর পচা আলু নিয়ে পড়েছেন বিপাকে। আলুগুলো উপজেলা চেয়ারম্যানকে দেখিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘এই আলু আর চাইল খাইলে তো মুই অসুস্থ হয়্যা পরিম’। পরে ভানু দাস ও লাল চরন মিলে আলুগুলো ইউএনও অফিসে রেখেই বাড়ি চলে যান।

এদিকে অভিযোগের সত্যতা পেয়ে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা শওকত আলী সরকার বীরবিক্রম নিম্নমানের ত্রাণসামগ্রী বিতরণ না করে ত্রাণের মান যাচাই করে মানসম্পন্ন ত্রাণ বিতরণ করার নির্দেশ দিয়েছেন।

একই অভিযোগ বিজো বালার। তিনি বলেন, নিম্নমানের চাল আর পচা আলু, সয়াবিনের পরির্বতে পামওয়েল দিয়েছে। এছাড়াও প্যাকেটজাত ঠিক মতো না করায় চাল আর ডাল একসঙ্গে মিশে গেছে।

ত্রাণে নিম্নমানের চাল ও পচা আলুর কথা স্বীকার করে উপজেলা পুজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি চিকিৎসক সলিল কুমার বর্মণ দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, এটি বড় দুঃখের বিষয়। হতদরিদ্র হিন্দু পরিবারগুলোর মাঝে নিম্নমানের ত্রাণ সামগ্রী দেয়া হচ্ছে।

জানতে চাইলে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শওকত আলী সরকার বীর বিক্রম বলেন, ‘নিম্নমানের চাল ও পচা আলু রয়েছে, তা জানার পর ত্রাণ বিতরণ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। ত্রাণের মান যাচাই করে বাকিদের মাঝে বিতরণ করা হবে।’

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. মাহবুবুর রহমান বলেন, ‘ত্রাণে নিম্নমানের চাল ও সামগ্রী থাকার কথা নয়। বিষয়টি খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

আগামীনিউজ/শরিফ