Dr. Neem
Dr. Neem Hakim

৪০ দিনের বকনা বাছুর দিনে দুধ দিচ্ছে আধা লিটার!


আগামী নিউজ | সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি প্রকাশিত: অক্টোবর ১০, ২০২১, ০৫:৩০ পিএম
৪০ দিনের বকনা বাছুর দিনে দুধ দিচ্ছে আধা লিটার!

ছবিঃ আগামী নিউজ

গাইবান্ধাঃ দুধের বাছুর। বয়স মাত্র ৪০ দিন। নিজেই পান করছে মায়ের দুধ। অথচ সেই বাছুরই প্রতিদিনই দুধ দিচ্ছে আধা লিটার। ব্যতিক্রমী এ ঘটনা বিস্ময় সৃষ্টি করেছে অনেকের মনে। তাই এ বাছুরটিকে এক নজর দেখতে ওই বাড়িতে ভীর করছে অসংখ্য মানুষ। তবে হরমোনের কারণে এমন ঘটনা ঘটছে বলে ধারনা উপজেলা প্রাণি সম্পদ বিভাগের।

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার সর্বানন্দ ইউনিয়নের তালুক সর্বানন্দ গ্রামের আফছার আলীর ৪০ দিন বয়সের কালো রঙয়ের বকনা বাছুর দিনে দুধ দিচ্ছেন আধা লিটার করে। খামারি আফছার আলী প্রায় ৪০ বছর ধরে গরু পালন করে আসছে। বর্তমানে তার খামারে রয়েছে বিভিন্ন জাতের ৮টি গরু।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আফছার আলী একজন গরিব চাষী। জমি চাষাবাদ ও গরুর খামারে গরু লালন-পালন করে সংসার চালান। পরিবারে স্ত্রী ছাড়াও তিন ছেলে ও চার মেয়ে রয়েছে। তিনি ৪০ দিন আগে ফ্রিজিয়ান জাতের একটি গাভী বাছুর প্রসব করে। বাচ্চার বয়স ২৫ দিন হওয়ার পর বকনা বাছুরের ওলান ফোলানো দেখতে পান তিনি। পরে স্থানীয় পল্লী চিকিৎসকের পরামর্শে বাছুরের ওলান থেকে দুধ সংগ্রহ শুরু করেন আফছার আলী। কম বয়সী বাছুর দেখে তিনি প্রতিদিন একবেলা করে দুধ সংগ্রহ করেন। আর এক বেলা দুধ সংগ্রহ না করলে এই বাছুর গরুটির ওলান ফুলে শক্ত হয়ে যায়। তিনি গত ১৫ দিন ধরে এভাবে দুধ সংগ্রহ করছেন। প্রথম কয়েকদিন বাছুরটি থেকে এক পোয়া দুধ পান তিনি। এখন দুধের পরিমান বেড়েছে। বর্তমানে প্রতিদিন বাছুরটি আধা লিটার করে দুধ দিচ্ছে। পরিবারের সদস্যরা এই দুধ পান করছেন। 

রোববার বিকেলে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, আশপাশের গ্রাম থেকে উৎসুক ২০-২৫ জন ওই বাড়িতে ভিড় করছেন। এ সময় ওই খামারি দুধ দোহন (সংগ্রহ) করছেন।

বাছুরটি দেখতে আসা এনামুল হক বলেন, 'জীবদ্দশায় এরকমের ঘটনা আর শুনিনি। বিশ্বাস করতে কষ্ট হচ্ছিল। তাই নিজ চোখে এসে দেখলাম। এটা আল্লাহর নেয়ামত।'

সোহান মিয়া নামের একজন বলেন, 'ছোটবেলা থেকেই গরু লালন পালন করি। কখনো এ রকম বাছুর ছাড়া দুধ দিতে দেখিনি। শুনে তাই দেখতে এসেছি। ঘটনার সত্যতাও পেয়েছি। এটা আসলে একটা অলৌকিক ঘটনা। আমার মত অনেকেই বিষয়টি শুনে আশ্চর্য হয়েছেন। তাই প্রতিবেশীরা এ দৃশ্য দেখতে বাড়িতে ভিড় জমাচ্ছেন।'

খামারী আফছার আলী জানান, 'প্রায় চল্লিশ বছর ধরে গরু পালন করে আসছি। এভাবে আমার খামারের বাছুর দুধ দিবে নিজেও বিশ্বাস করতে পারছিনা। আল্লাহর দরবারে শুকরিয়া জানাই। প্রতিদিন আমাদের এ বাছুরটি দেখতে দুর দুরান্ত থেকে অনেক মানুষ আসে। বাছুর থেকে অলৌকিকভাবে পাওয়া দুধ আমার নিজেরা পান করি।'

উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ফজলুল করিম বলেন, 'হরমোনের কারনে বকনা বাছুরটি দুধ দিচ্ছে, তাই বিস্মিত হওয়ার কিছু নেই। যদি এই দুধ স্বাস্থ্যসম্মত হয় তাহলে এটা যে কেউ খেতে পারেন।'

আগামীনিউজ/শরিফ