Agaminews
Dr. Neem
Dr. Neem Hakim

রাজশাহীতে বিনামূল্যে করোনা পরীক্ষায় পজেটিভ ২৭


আগামী নিউজ | আমানুল্লাহ আমান, রাজশাহী জেলা প্রতিনিধি প্রকাশিত: জুন ৬, ২০২১, ০৬:১৪ পিএম
রাজশাহীতে বিনামূল্যে করোনা পরীক্ষায় পজেটিভ ২৭

ছবি: আগামী নিউজ

রাজশাহীঃ করোনার বিনামূল্যে করোনা পরীক্ষা শুরু করেছে কর্তৃপক্ষ। রবিবার (৬ জুন) নগরীর পাঁচটি পয়েন্টে করোনার নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হয়েছে। এদিন সংগ্রহ করা হয় ২৮৫ জনের নমুনা। এদের মধ্যে পজেটিভ আসে ২৭ জনের। যেটি হার হিসেবে  ৯ দশমিক ৪৭ শতাংশ।  

রবিবার (৬ জুন) সকাল ১০টার দিকে নগরীর সাহেব বাজার জিরোপয়েন্টে এর উদ্বোধন করা হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক, রাজশাহীর জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল,
সিভিল সার্জন ডা. মো. কাইয়ুম তালুকদারসহ প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা। এ সময় জনসাধারণের মাঝে ভ্রাম্যমান করোনা টেস্ট শুরু করা হয়। 

এদিন নগরীর আরো চারটি পয়েন্টে র‍্যাপিড এন্টিজেন টেস্ট করা হয়। সাহেব বাজার জিরো পয়েন্ট ছাড়াও বাকি চারটি পয়েন্ট হলো- হড়গ্রাম বাজার, সিএন্ডবি মোড়, লক্ষীপুর মোড় ও তালাইমারী বাজার। প্রতিটি পয়েন্টে একজন ম্যাজিস্ট্রেটের নের্তৃত্বে স্যাম্পল কালেকশন করে সিভিল সার্জনের প্রতিনিধি টিম। এ কাজে সার্বিক সহযোগিতা করে সিভিল সার্জন অফিস ও রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশ। প্রথম দিনে নগরীর পাঁচটি পয়েন্টে মোট ২৮৫ জনের নমুনা
পরীক্ষা করে ২৭ জন পজেটিভ শনাক্ত হয়। যেটির হার ছিল ৯ দশমিক ৪৭ শতাংশ। 

সিভিল সার্জনের দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, নগরীর সাহেব বাজারে ভ্রাম্যমাণ ক্যাম্পে ৮৪ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হয়। এতে ৬ জনের করোনা পজেটিভ আসে। এছাড়া হড়গ্রাম বাজারে ৩৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৫ জন, সিএন্ডবি মোড়ে ৫৪ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৩ জন, লক্ষ্মীপুর মোড়ে ৫০ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৮ জন এবং তালাইমারী মোড়ে ৬৪ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৫ জনের করোনা পজেটিভ এসেছে। সেই তুলনায় সংক্রমণের দিক থেকে এগিয়ে নগরীর লক্ষ্মীপুর এলাকা। 

এদিকে করোনার উর্ধমুখী সংক্রমণ ঠেকাতে রাজশাহীতে চলছে রাত্রীকালীন লকডাউন। প্রতিদিন সন্ধ্যা ৭ টা থেকে সকাল ৬টা পর্যন্ত দোকান-পাট, মার্কেট ও মানুষের চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। এছাড়াও বন্ধ রয়েছে সভা-সমাবেশসহ সব ধরণের সামাজিক অনুষ্ঠান। তবে বিনামূল্যে সাধারণ মানুষের করোনা টেস্ট করতেই মাঠে নেমেছে প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ টিম। 

এ বিষয়ে রাজশাহীর সিভিল সার্জন ডা. মো. কাইয়ুম তালুকদার বলেন, ভ্রাম্যমাণ ক্যাম্পে ফ্রি করোনা টেস্ট করতে জনগনের আগ্রহ আছে। প্রাথমিকভাবে এক হাজার ২০০ জনের টেস্ট করার পরিকল্পনা আছে। তবে জনবল সংকটের কারণে ঠিক বলা যাচ্ছে না। আগামীতে এ কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়া যাবে কি না-আমরা রাজশাহী সিটি করপোরেশনের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে কথা বলবো। 

এ ব্যাপারে মহানগর পুলিশ কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক বলেন, আমরা ফ্রি ক্যাম্পেইন করছি। এর মাধ্যমে জানতে পারবো, নতুন করে রাজশাহীতে করোনার ভেরিয়েন্ট কতটুকু আছে। সারা বাংলাদেশ রাজশাহীকে নিয়ে আতঙ্কিত। রাজশাহী নগরীর পাঁচটি পয়েন্টে টেস্ট করা হচ্ছে, সকলকে আহবান জানাচ্ছি টেস্ট করার জন্য। আজ টেস্টের বেশিরভাগ নেগেটিভ এসেছে।