Agaminews
Dr. Neem
Dr. Neem Hakim

দুপচাঁচিয়ার নাগর নদ এখন কচুরিপানার দখলে


আগামী নিউজ | দেওয়ান পলাশ, দুপচাঁচিয়া ( বগুড়া) প্রতিনিধি প্রকাশিত: মে ৭, ২০২১, ০২:১১ পিএম
দুপচাঁচিয়ার নাগর নদ এখন কচুরিপানার দখলে

ছবি : আগামী নিউজ

বগুড়াঃ নাগর নদের বুকে বাসা বেধেঁছে কচুরিপানা। যতদূর চোখ যায়, ততদূর কেবল'ই দেখা যায় কচুরিপানা। এক সময়ে উত্তাল ছিল নাগর নদ। অথচ বৈশাখ মাসের এমন দিনগুলোতে ফুলে ফেঁপে ওঠা নাগর নদ স্রোতের তোড়ে  পরাক্রমশালিতায় প্রবাহিত হত।

নাগরের বুকে নৌকা ভাসত সারি সারি। সেই নৌকায় যাত্রী পারাপার হত, কোন কোন নৌকায় বহন করা হত মালামাল আবার  নাগরের বুকে নৌকা ভাসিয়ে জেলেরা ধরত মাছ। নাগর নদের সেইসব দিনের কথা আজ শুধুই স্মৃতি। নাগর নদের স্মৃতিময় দিনের কথা আজও ফিরে মুখে মুখে।

বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলা সদরের কোল ঘেষে বয়ে চলা নাগর নদ করতোয়া নদীর একটি শাখা নদ। নাগর নদ বগুড়া জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার আটমুল ইউনিয়নের জগদীশপুরের নিকট করতোয়া নদী থেকে বের হয়ে প্রায় ১০ মাইল বগুড়া ও জয়পুরহাট জেলা সীমানা বরাবর প্রবাহিত হয়ে দুপচাঁচিয়া উপজেলায় প্রবেশ করে।

তারপর দুপচাঁচিয়া উপজেলার চামরুল ইউনিয়নের চামরুল, মোস্তফাপুর, পোড়াপাড়া, আটগ্রাম, দুপচাঁচিয়া ইউনিয়নের খোলাস,ধাপসুলতানগঞ্জ,সঞ্জয়পুর, আলোহালী এবং তালোড়া ইউনিয়নের তালোড়া রেলস্টেশনের পূর্বপাশ দিয়ে পরানপুর অতিক্রম করে সর্বশেষ নাটোর জেলার সিংড়া উপজেলায় প্রবেশ করে সিংড়া ব্রীজের নিকট আত্রাই নদীতে পড়েছে। নাগর নদের দৈর্ঘ্য প্রায় ৭৫ মাইল।

আগামীনিউজ/নাসির