Agaminews
Dr. Neem
Dr. Neem Hakim

বাহুবলে প্রধান শিক্ষক ও সভাপতির বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ


আগামী নিউজ | মোহাম্মদ শাহ আলম, হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি প্রকাশিত: মার্চ ৫, ২০২১, ১২:২১ পিএম
বাহুবলে প্রধান শিক্ষক ও সভাপতির বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ

আগামী নিউজ

হবিগঞ্জঃ জেলার বাহুবল উপজেলার মানব কল্যাণ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. শেখ মুজিবুর রহমান ও সাবেক ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মো.  আ. ক. ম.  উস্তার মিয়া তালুকদার  বিরুদ্ধে অনিয়ম ও  দুর্নীতির অভিযোগ পাওয়া গেছে। তিনি আর্থিক অনিয়মসহ ক্ষমতার অপব্যবহার করে বিদ্যালয়ের পরিবেশ নষ্ট করছেন বলে অভিযোগ করা হয়।
 
গত ২৪ ফেব্রুয়ারী  মো. আব্দুল মোতালিব ও সাবেক এডহক কমিটির সভাপতি মো লুৎফুর রহমান ফুল মিয়া মেম্বার  নামে দুই ব্যাক্তি  বাহুবল উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরসহ বিভিন্ন দপ্তরে  এ অভিযোগ দায়ের করেন।
 
অভিযোগে বলা হয়, প্রধান শিক্ষক মুজিবুর রহমান ৭ বছর ধরে দায়িত্ব পালনকালে ভূয়া বিল ভাউচারের মাধ্যমে বিদ্যালয়ের তহবিল থেকে লাখ লাখ টাকা তুলে আত্মসাৎ করেছেন। কমিটির রেজুলেশন বই যাচাই করলে সত্যতা পাওয়া যাবে বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়।
 
অভিযোগে আরও বলা হয়, গত বছর বিদ্যালয়ের শোক দিবসের অনুষ্ঠানে হাজির না থেকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার প্রতি অবজ্ঞা প্রকাশ করেন। এছাড়া এসএসসি পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে ফর্ম পূরণ ফি মনগড়াভাবে নিয়ে আত্মসাৎ করেন। বিদ্যালয়ের পুকুর ভরাট করাসহ সীমানা প্রাচীর নির্মানের নামে ভূয়া ভাউচার  করে বেতনের সাথে মিলিয়ে মনগড়া খরচ দেখিয়ে টাকা আত্মসাৎ করেন। সাবেক এমপি মুনিম বাবুকে বিনা কারণে আমন্ত্রণ করে অনুষ্ঠানের নামে টাকা আত্মসাৎ, বই প্রকাশনী থেকে টাকা গ্রহণ, এসএসসি পরীক্ষার্থীদের প্রশংসা পত্রের নামে টাকা আত্মসাত করেন।
 
এ ছাড়া অভিযোগকারী অভিযোগে উল্লেখ করেন, তিনি ম্যানেজিং কমিটির ইলেকশন বন্ধ করতে উচ্চ আদালতে রিট করেন। এ মামলা চালাতে প্রধান শিক্ষক ও সাবেক সভাপতি উস্তার মিয়া মামলা চালাতে স্কুলের ফান্ড থেকে টাকা আত্মসাৎ করেন।
 
এ ব্যাপারে মানব কল্যাণ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মুজিবুর রহমানের সাথে মুঠোফোনে বারবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।
 
ম্যানেজিং কমিটির সাবেক সভাপতি উস্তার মিয়া আগামী নিউজকে বলেন, আমি ওই স্কুলে ভালো কাজ করে যাচ্ছি স্কুল কে কলেজ রূপান্তরের কাজ ও করে যাচ্ছি এলাকার কিছু মানুষ ভালো কাজ দেখতে পারে না তাই আমার বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ করেন।
 
আগামীনিউজ/এএস