Agaminews
Dr. Neem
Dr. Neem Hakim

ধুনট পৌরসভায় স্বতন্ত্র প্রার্থী নিয়ে বিপাকে আ.লীগ


আগামী নিউজ | নাহিদ আল মালেক, বগুড়া প্রতিনিধি প্রকাশিত: জানুয়ারি ২০, ২০২১, ০৪:০২ পিএম
ধুনট পৌরসভায় স্বতন্ত্র প্রার্থী নিয়ে বিপাকে আ.লীগ

ছবি: আগামী নিউজ

বগুড়াঃ জেলার ধুনট পৌরসভার সাধারণ নির্বাচন তৃতীয়ধাপে আগামী ৩০ জানুয়ারি শনিবার অনুষ্ঠিত হবে। এতে মেয়র পদে আওয়ামী লীগ, বিএনপি, কমিউনিষ্ট পার্টি ও স্বতন্ত্রপ্রার্থীসহ ৪ জন প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। নির্বাচনে মেয়র পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী নিয়েই বিপাকে রয়েছে আওয়ামী লীগ।
২০০১ সালে প্রতিষ্ঠিত ৫.৯বর্গকিলোমিটার আয়তনের ‘খ’ শ্রেণির ধুনট পৌরসভায় এবার মেয়র পদে ৪ জন, সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ১০জন এবং ৯টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ৩৩ জনসহ ৪৭ জন প্রার্থী প্রতিদ্ব›িদ্বতা করছেন। 
মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বীতাকারীরা হলেন- বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান টিআইএম নুরুন্নবী তারিক, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি মনোনীত ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী সাবেক পৌর মেয়র আলীমুদ্দিন হারুন মন্ডল, স্বতন্ত্র প্রার্থী ও বর্তমান মেয়র এজিএম বাদশা এবং বাংলাদেশ কমিউনিষ্ট পার্টির প্রার্থী কাস্তে প্রতীকের বীরমুক্তিযোদ্ধা সাহা সন্তোষ।
গত ১১ জানুয়ারি প্রতীক বরাদ্দের পর থেকে পৌরসভা এলাকায় শুরু হয়েছে পোষ্টারিং, মাইকিং, জনসংযোগসহ প্রচার প্রচারণা। নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী (আওয়ামী লীগ থেকে বহিস্কৃত) কে নিয়েই আলোচনা বেশি হচ্ছে। আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি টিআই এম নুরুন্নবী তারেক যেমন হেভিওয়েট প্রার্থী তেমনি উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এবং দুইবারের নির্বাচিত মেয়র এজিএম বাদশাও নির্বাচনী লড়াইয়ে কম শক্তিশালী নন। এবারো স্বতন্ত্র প্রার্থী এজিএম বাদশা নির্বাচিত হলে তিনি পরপর তিনবার নির্বাচিত হয়ে হ্যাটট্রিক করার গৌবর অর্জন করবেন। অন্যদিকে বিএনপির প্রার্থী আলীমুদ্দিন হারুন ইতোপুর্বে ধুনট পৌরসভার মেয়র নির্বাচিত হয়েছিলেন। তিনিও নির্বাচনী লড়াইয়ে থাকবেন বলে ভোটারদের অভিমত। 
ধুনট উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারি রির্টানিং কর্মকর্তা মো. মোকাদ্দেস হোসেন জানান, আগামী ৩০ জুন ধুনট পৌরসভায় গোপন ব্যালটের মাধ্যমে ভোটগ্রহণ করা হবে। সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ভোট নেয়া হবে। এতে ৯টি ভোটকেন্দ্রের ৩১টি বুথে ভোট নেয়া হবে। নির্বাচনে  সর্বমোট ভোটার সংখ্যা ১১ হাজার ৭শ১৩জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৫হাজার ৬শ ৩৭জন আর নারী ভোটার ৬ হাজার ৭৬জন।
উল্লেখ্য, বিগত ২০১৫ সালের ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী এজিএম বাদশা, ২০১১ সালে তৎকালীন আওয়ামী লীগের প্রার্থী এজিএম বাদশা, ২০০৪ সালে বিএনপির প্রার্থী আলীমুদ্দিন হারুন ধুনট পৌরসভার মেয়র নির্বাচিত হয়েছিলেন। ২০০১ সালে প্রতিষ্ঠিত এই  পৌরসভায় প্রথম নির্বাচনের পুর্ব পর্যন্ত পৌর প্রশাসক ছিলেন ধুনট পৌর বিএনপির নেতা আকতার আলম সেলিম।

আগামীনিউজ/সোহেল