Agaminews
Dr. Neem Hakim

কথা বলুন দূর থেকে ভিড়ে যাবেন না


আগামী নিউজ | ডা: মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর উল আলম   প্রকাশিত: মার্চ ২৪, ২০২০, ০৯:২৭ পিএম
কথা বলুন দূর থেকে ভিড়ে যাবেন না

করোনাভাইরাসের এই সংক্রমণের সময় পরস্পর কথা বলুন দূর থেকে। অত্যাবশ্যকীয় না হলে অপরের সাথে এখন কথাও বলা উচিত নয়। যদি কথা বলতেই হয় তবে কমপক্ষে এক মিটার দূর থেকে কথা বলুন। কারণ কাছাকাছি থেকে কথা বললে কেউ যদি আক্রান্ত থাকে তাহলে তার মুখের লালা, থুথু একজনের মুখে, নাকে অথবা চোখে চলে যেতে পারে। আগে বলা হতো কমপক্ষে এক মিটার দূর থেকে কথা বলুন। এখন অবশ্য তা বাড়িতে দুই মিটারের কথা বলা হয়েছে। এটা ৬ ফুটের চেয়ে একটু বেশি দূরত্ব।

মূলত প্রয়োজন না হলে কথা না বলাই ভালো। যতটুকু সম্ভব ঘরেই থাকুন। প্রয়োজন না হলে ঘরের বাইরে যাবেন না। আর সমাবেশ অথবা ভিড়ের মধ্যে একেবারেই যাবেন না। কারণ আমরা কেউ জানি না কার মধ্যে করোনাভাইরাসের জীবাণু রয়েছে। জীবাণুটি কারো দেহে প্রবেশ করলে কয়েক দিন উপসর্গ ছাড়াই কেউ কাটিয়ে দিতে পারেন। আবার কম বয়সীদের মধ্যে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বেশি থাকে। এদের মধ্যে লক্ষ্মণ প্রকাশ পেতেও দেরি হতে পারে। রোগের উপসর্গ প্রকাশ না পাওয়া পর্যন্ত সবাই নিজেকে সুস্থ মনে করতে পারেন। এখন যতদূর সম্ভব চিকিৎসকের চেম্বারেও যাবেন না। যাদের সর্দি, হাঁচি অথবা কাশি আছে তাদের উচিত চিকিৎসকদের চেম্বারে এ সময়ে না যাওয়া। তাদের উচিত আইইডিসিআরের হটলাইনে যোগাযোগ করে তাদের পরামর্শ নেয়া।

এখন আইইডিসিআরের সাথে যোগাযোগ করাটা আরো সহজ করে দেয়া হয়েছে। হটলাইন ছাড়াও ফেসবুক অ্যাকাউন্ট, ইমেইল নম্বর রয়েছে তাদের। হটলাইনে যোগাযোগ করতে না পারলে তাদের ই-মেইল করে ফোন নম্বর দিয়ে ঠিকানা দিন এবং আপনার সমস্যার কথা বলুন। তারাই আপনার সাথে যোগাযোগ করবেন অথবা ই-মেইলেই পরামর্শ দেবেন। কেউ বিদেশফেরত কারো সাথে সংস্পর্শে এলে তিনি চিকিৎসকের চেম্বারে আসবেন না। কারণ আপনি যেখানেই যাবেন এবং যার সংস্পর্শেই আসবেন তিনি সংক্রমিত হয়ে যেতে পারেন। সে কারণে ঘরে থেকেই চিকিৎসকের সাথে ফোনে কথা বলুন অথবা আইইডিসিআরে কথা বলুন।

আপনি যদি বয়স্ক হন, আপনার হাঁচি-কাশি না থাকলেও আপনার অন্যান্য অসুখ থাকতে পারে। যেমন ডায়াবেটিস থাকতে পারে, আপনার উচ্চরক্তচাপ থাকতে পারে, আপনার হার্টে কোনো সমস্যা থাকতে পারে। অথবা আপনার হাঁপানি থাকতে পারে। এমন হলে আপনি ঘরের বাইরে যাবেন না। কারণ এসবে যারা ভুগছেন তাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম থাকে। তারা সহজেই সংক্রমিত হয়ে যেতে পারে। সর্বোপরি কিছুক্ষণ পর পর সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে ফেলুন। হাঁচি অথবা কাশি দিলে নাকে মুখে টিস্যু পেপার চেপে ধরুন এবং এটা আর ব্যবহার না করে ফেলে দিন। নিজের খেয়াল রাখুন তাহলে করোনার বিপদ থেকে মহান আল্লাহ হয়তো আপনাকে রক্ষা করবেন।

আপনারা সবাই ভালো থাকুন।


 
লেখক : সহকারী অধ্যাপক, মেডিসিন ও রিওম্যাটোলজি, স্যার সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজ

আইইডিসিআর ফেসবুক পেজ : Iedcr, COVID-19 Control Room
আইইডিসিআরের ই-মেইল নম্বর : iedcrcovid19@gmail.com

আগামী নিউজ/নাঈম

Dr. Neem