Dr. Neem on Daraz
Dr. Neem Hakim

টাইব্রেকারে ব্রাজিলকে বিদায় করে সেমিফাইনালে ক্রোয়েশিয়া


আগামী নিউজ | ক্রীড়া ডেস্ক প্রকাশিত: ডিসেম্বর ১০, ২০২২, ০৯:২২ এএম
টাইব্রেকারে ব্রাজিলকে বিদায় করে সেমিফাইনালে ক্রোয়েশিয়া

ঢাকাঃ নাটকীয়তায় শেষ হল বিশ্বকাপের প্রথম কোয়ার্টার ফাইনালের লড়াই। শক্তিশালী ব্রাজিলকে হারিয়ে যার শেষ হাসি হাসলো ক্রোয়েশিয়া। কাতারের এডুকেশন সিটি স্টেডিয়ামে শেষ আটের এই লড়াইয়ে নির্ধারিত ও অতিরিক্ত সময়ে কোনো দল গোল করতে না পারায় খেলা গড়ায় টাইব্রেকারে। যেখানে ব্রাজিলকে ৪-২ ব্যবধানে হারিয়ে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করল ক্রোয়েশিয়া।

এর আগে ম্যাচের শুরু থেকেই দুই দল আক্রমণাত্মক ফুটবল খেললেও কাঙ্ক্ষিত গোলের দেখা পায়নি কেউ। ম্যাচের পঞ্চম মিনিটে গোলমুখে প্রথম শট নেয় ব্রাজিল। তবে ভিনিসিয়াস জুনিয়রের সেই শট সহজেই রুখে দেন ক্রোয়েট গোলরক্ষক লিভাকভিচ। 

এর ঠিক আট মিনিট পর প্রথমবারের মতো ভালো সুযোগ পায় ক্রোয়েশিয়া। বল পায়ে নিজেদের অর্ধ থেকে ডি-বক্স পর্যন্ত চলে যান ইউরানোভিচ। তার বল পেয়ে ক্রস করেন পাসালিচ। দারুণ জায়গায় বল পেয়ে যান পেরিসিচ। তবে মিলিতাওয়ের চাপের মুখে শট রাখতে পারেননি লক্ষ্যে। এই যাত্রায় রক্ষা পায় ব্রাজিল।

ম্যাচের ২০তম মিনিটে পেনাল্টি স্পটের কাছে ভিনিসিয়াসের শট ব্লক করেন সোসা। কয়েক সেকেন্ড পর গোলরক্ষক বরাবর দুর্বল শট নেন নেইমার। ৩০তম মিনিটে পেরিসিচের দূরপাল্লার শট চলে যায় ক্রসবারের উপর দিয়ে। এরপর আর কোনো দলই ভালো সুযোগ না পাওয়ায় গোলশূন্য ড্র নিয়ে বিরতিতে যায় এই দুই দল।

বিরতি থেকে ফিরে ক্রোয়েশিয়াকে চেপে ধরে ব্রাজিল। ৪৮তম মিনিটে দারুণ সুযোগও পেয়ে যায় তারা। তবে পেনাল্টি স্পটের কাছ থেকে নেইমারের নেয়া শট রুখে দেন গাভারদিওল। ৫৫তম মিনিটে আবারও সুযোগ পান নেইমার। তবে রিচার্লিসনের কাছ থেকে পাওয়া বল বা পায়ের শটে লক্ষ্যভেদ করতে পারেননি এই পিএসজি ফরোয়ার্ড।

এরপর আর কোনো দল ভালো সুযোগ তৈরি করতে পারেনি। এতেই খেলা গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। যার শুরু থেকেই ক্রোয়েট রক্ষণকে চেপে ধরে সেলেসাওরা। ফলও পেয়ে যায় দ্রুত। ১০৬তম মিনিটে নেইমারের গোলে কাঙ্ক্ষিত গোলের দেখা পায় ব্রাজিল। এই গোলেই নেইমার স্পর্শ করেন দেশের হয়ে কিংবদন্তি পেলের সর্বোচ্চ ৭৭ গোলের রেকর্ড।

নাটকীয়তার বাকি তখনও। ব্রাজিল যখন জয়ের আভাস পাচ্ছিল, তখনই সেই আনন্দে ভাগ বসান ক্রোয়েট ফরোয়ার্ড পেটকোভিচ। ১১৭তম মিনিটে তার গোলেই ম্যাচে সমতায় ফেরে ক্রোয়েশিয়া। এরপরই খেলা গড়ায় টাইব্রেকারে।

ক্রোয়েশিয়ার হয়ে চারটি শটের প্রতিটিতেই গোল করেন নিকোলা ভ্লাসিচ, লাভ্রো মায়ের, লুকা মদ্রিচ ও মিসলাভ ওরসিচ। তাদের একজনের শটও হাতের রুখতে পারেননি ব্রাজিলিয়ান গোলরক্ষক আলিসন বেকার। আর এতেই নিশ্চিত হয়ে যায় টানা দ্বিতীয়বারের মতো ক্রোয়েটদের ফাইনাল খেলার স্বপ্ন।

বুইউ