Dr. Neem on Daraz
Dr. Neem Hakim

শেষ দিনে ম্যাচ বাঁচানোর উপায় বলে দিলেন সাকিব


আগামী নিউজ | ক্রীড়া ডেস্ক প্রকাশিত: মে ২৬, ২০২২, ১০:১২ পিএম
শেষ দিনে ম্যাচ বাঁচানোর উপায় বলে দিলেন সাকিব

ঢাকাঃ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় শ্রীলঙ্কা টেস্টে সাকিব আল হাসানের খেলা নিয়েই শঙ্কা ছিল। তবে সিরিজ শুরুর দিন দুয়েক আগে করোনামুক্ত হয়ে দলে ফিরেছেন। করোনার ধকল কাটিয়ে দলকে সহায়তা করছেন। যদিও নিজেকে দলের পঞ্চম বোলার মনে করেন, তবে ঢাকা টেস্টে তিনি-ই বাংলাদেশের স্ট্রাইক বোলার। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে দলের পক্ষে সর্বোচ্চ পাঁচ উইকেট পেয়েছেন তিনি, ৪০ ওভার বোলিং করে মাত্র ৯৬ রান খরচায়।

চার বছর পর টেস্টে বল হাতে এই মাইলফলকের দেখা পেয়েছেন সাকিব। সর্বশেষ ২০১৮ সালের জুলাইয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ইনিংসে পাঁচ বা তার বেশি উইকেট তুলে নিয়েছিলেন তিনি। সাবিনা পার্কে সেদিন মাত্র ৩৩ রান দিয়ে ৬ উইন্ডিজ ব্যাটারকে ধরাশায়ী করেছিলেন বিশ্বের অন্যতম সেরা এই অলরাউন্ডার। ‘ ’

টেস্ট ক্যারিয়ারের ১৯তম ফাইফার পেয়ে যারপরনাই উচ্ছ্বসিত সাকিব, ‘৫ উইকেট পেলে তো অবশ্যই ভালো লাগবে। টেস্ট খেলতে থাকলে ম্যাচের ভেতরেই বোলিংয়ের অনেক কিছু নিয়ে প্র্যাকটিস করা যায়। যেগুলো ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টিতে সহায়তা করবে।’

চার বছর পর পাঁচ উইকেট পেয়েছেন এটা মনে করিয়ে দিতেই বললেন, ‘৪ বছরে ম্যাচ খেলেছি কয়টা? আর বোলার হিসেবে তো খেলি না। আমাকে দলের ৫ নম্বর বোলার বলে। এখন তো বোলিংয়ের দায়িত্ব কম।’

ঢাকা টেস্টের শেষ দিনে আগামীকাল (শুক্রবার) ম্যাচ বাঁচাতে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। চতুর্থ দিন শেষে দ্বিতীয় ইনিংসে ৪ উইকেটে ৩৪ রান করা বাংলাদেশ এখনো শ্রীলঙ্কার চেয়ে ১০৭ রানে পিছিয়ে আছে। ম্যাচের ফল নিজেদের অনুকূলে রাখতে তাই বাকি ব্যাটারদের সবাইকেই নিজেদের সেরাটা দিতে হবে বলে মনে করেন সাকিব, ‘দলকে বাঁচাতে গেলে আমরা যে ৬ উইকেট আছি সবাইকেই এখন অবদান রাখতে হবে। তা না হলে ম্যাচ বাঁচানো কঠিন। কাল প্রথম ঘণ্টায় ফুল অ্যাটাক করবে, খুবই স্বাভাবিক। আমরা হলেও একই কাজ করতাম। আমাদের এই চাপ সামলাতে হবে। লাঞ্চ পর্যন্ত যদি উইকেট না হারাই, একটা অবস্থানে আসার চেষ্টা করতে পারব।‘

দ্রুতলয়ে রান তোলার চেষ্টার চেয়ে বরং ধৈর্যশীল ব্যাটিংকেই আপাতত শ্রেয় মনে করছেন বাংলাদেশের সাবেক এই অধিনায়ক, ‘এখন দলের যে পরিস্থিতি, সেঞ্চুরির চেয়ে ৩ ঘণ্টা যদি ব্যাটিং করতে পারি... মুশফিক লিটন যদি লাঞ্চ পর্যন্ত খেলতে পারে এবং আমি তারপর ৩ ঘণ্টা ব্যাট করতে পারি, এটা সেঞ্চুরির চেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ হবে। লাঞ্চের আগে ১ উইকেটের বেশি পড়ে গেলেই আমরা খুব বাজে অবস্থায় থাকব। যখন দুই ব্যাটার সেট হয়ে যাবে তাদের আউট করা কঠিন। পেসাররা বড়জোর ৫-১০ ওভারের স্পেল করতে পারবে। এই গরমে ওরা কতক্ষণ বল করতে পারবে? লাঞ্চের আগে সর্বোচ্চ ২০ ওভার করতে পারবে। এই হুমকি সামলাতে পারলে আমাদের জন্য সহজ হয়ে যাবে।’

ঢাকা টেস্টে প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের করা ৩৬৫ রান টপকে শ্রীলঙ্কা নিজেদের প্রথম ইনিংসে সব উইকেট হারিয়ে ৫০৬ রান করেছে। যার ফলে ১৪১ রানের বড়সড় লিড পেয়েছে তারা। দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ৩৪ রানে ৪ উইকেট হারানো বাংলাদেশের সামনে টেস্টের শেষ দিনে প্রথম চ্যালেঞ্জ ইনিংস হার এড়াতে শ্রীলঙ্কার লিড অতিক্রম করা। সেটা করে ম্যাচ বাঁচাতে সাকিবের বাতলে দেওয়া পথেই এগোতে হবে বাংলাদেশকে।

এসএস