Dr. Neem on Daraz
Dr. Neem Hakim

বৃষ্টিতে বন্ধ খেলা, লাঞ্চে গেল বাংলাদেশ


আগামী নিউজ | ক্রীড়া ডেস্ক প্রকাশিত: মে ২৫, ২০২২, ১২:৩০ পিএম
বৃষ্টিতে বন্ধ খেলা, লাঞ্চে গেল বাংলাদেশ

ঢাকাঃ মধাহ্ন বিরতির আগে শেষ ওভার করতে এসেছিলেন সাকিব আল হাসান। এক বল করতেই মিরপুরে ঝুম বৃষ্টি। পাঁচ বল বাকি থাকতেই নেওয়া হলে লাঞ্চ বিরতি। উইকেটসহ বেশ অনেকটা জায়গা কাভার দিয়ে ঢাকা। এই সেশনে মোট ২৪.১ ওভার খেলা হয়েছে। রান হয়েছে কেবল ৬৭। ২ উইকেট তুলে সকালের সেশনে এগিয়ে বাংলাদেশ। শ্রীলঙ্কা এখনো ১৫৫ রানে পিছিয়ে।

৭০.১ ওভার শেষে ৪ উইকেট হারিয়ে ২১০ রানে ব্যাট করছে শ্রীলঙ্কা। ২৫ রানে ম্যাথুস ও ৩০ রানে ব্যাট করছে ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা।

এর আগে দিনের খেলা শুরু হতেই দলকে সাফল্য এনে দেন এবাদত হোসেন। দিনের দ্বিতীয় বলেই নাইটওয়াচম্যান রাজিথাকে বোল্ড করে সাজঘরের পথ দেখালেন। ১২ রানে ফিরলেন তিনি। এরপর লঙ্কান অধিনায়ক দিমুখ করুনারত্নকে ফিরিয়ে প্রতিরোধ ভাঙলেন সাকিব আল হাসান। রাউন্ড দ্যা উইকেট থেকে বাঁহাতি এই ওপেনারকে বোল্ড করেন তিনি। ৮০ রানে সাজঘরে ফিরেছেন করুণারত্নে। সাকিব পেয়ে গেলেন নিজের দ্বিতীয় উইকেট।

আগেরদিন ২ উইকেটে ১৪৩ রান নিয়ে খেলা শেষ করেছিল শ্রীলঙ্কা। দিনের শেষ ভাগে নাইটওয়াচম্যান হিসেবে পাঠানো হয় রাজিথাকে। সেই দায়িত্ব ভালোভাবে পালন করে দিনের বাকি অংশে উইকেট বাঁচিয়ে রাখেন এ লেজের সারির ব্যাটার।

তবে নতুন দিনে আর পারলেন না রাজিথা। আজ দিনের প্রথম ওভারে বল তুলে দেওয়া হয়েছিল এবাদতকে। প্রথম বলে এক রান নিয়ে রাজিথাকে স্ট্রাইক দেন করুনারাত্নে। পরের বলেই ভুল লাইনে খেলে বোল্ড হয়ে যান শূন্য রান করা রাজিথা।

এরপর সাবেক অধিনায়ক ম্যাথিউজকে নিয়ে জুটি বাঁধেন বর্তমান অধিনায়ক করুনারাত্নে। এবাদত ও সাকিবের শুরুর স্পেলে খুব একটা রান করতে পারছিলেন না তারা। তবে ৫৫তম ওভারে এবাদতের বলে বাউন্ডারি হাঁকিয়ে জড়তা কাটিয়ে ওঠেন ম্যাথিউজ।

সাকিবের করার পরের ওভারে চার মারেন করুনারাত্নেও। লঙ্কান অধিনায়কের বিদায়ঘণ্টাও সেই ওভারে বাজান সাকিব। ঝুলিয়ে দেওয়া ডেলিভারিতে করুনারাত্নেকে সামনের পায়ে আনেন সাকিব, সেটিই কাল হয় এ বাঁহাতি ওপেনারের জন্য।

ড্রাইভ করার ব্যর্থ চেষ্টায় সেই ডেলিভারিটি তার ব্যাট ফাঁকি দিয়ে বল আঘাত হানে মিডল স্ট্যাম্পে। যার ফলে সমাপ্তি ঘটে ১৫৫ বলে ৯ চারের মারে ৮০ রানের ইনিংসের। এর আগে ব্যক্তিগত ৩৬ রানে বাংলাদেশের রিভিউ ব্যর্থতা ও ৩৭ রানে ক্যাচ মিসের কারণে বেঁচে যান করুনারাত্নে।

অধিনায়ককে হারানোর পর খোলসে ঢুকে পড়েন ম্যাথিউজ ও ধনঞ্জয়। নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে খুব একটা রান দিচ্ছিলেন না এবাদত, সাকিবরা। এবাদতের বলে বেশ কয়েকবার পরাস্তও হয়েছেন ম্যাথিউজ। কিন্তু দাঁতে দাঁত চেপে সেশনের বাকি সময়টা কাটিয়ে দেন এ অভিজ্ঞ ব্যাটার।

অন্যদিকে শুরু থেকেই হাত খুলে খেলার চেষ্টা দেখা গেছে ধনঞ্জয়ের মাঝে। মধ্যাহ্ন বিরতি দেওয়ার আগের ওভারে এবাদতের বলে তিন বাউন্ডারি হাঁকিয়ে লঙ্কানদের দুইশো পার করিয়ে দেন এ মিডল অর্ডার ব্যাটার। সেশন শেষে ধনঞ্জয় ৪০ বলে ৩০ ও ম্যাথিউজ ৭৬ বলে ২৫ রানে অপরাজিত রয়েছেন।

ইনিংসের ৭১তম ওভার শেষে হওয়ার কথা ছিল আজকের মধ্যাহ্ন বিরতি। কিন্তু সেই ওভারে সাকিব প্রথম বল করার পরই নামে গুঁড়ি বৃষ্টি। যে কারণে ওভার শেষ না করেই বিরতি দিয়ে দেন আম্পায়াররা। বৃষ্টি থেকে বাঁচাতে উইকেট ও এর আশপাশের জায়গা কভারে ঢেকে রাখা হয়েছে।

এমবুইউ