Agaminews
Dr. Neem Hakim
Dr. Neem Hakim

রাজধানীতে ক্রেতা আছে, গরু নেই


আগামী নিউজ | মুহা. মনির-উজ-জামান প্রকাশিত: জুলাই ৩১, ২০২০, ০৫:৫৬ পিএম
রাজধানীতে ক্রেতা আছে, গরু নেই

ঢাকা : রাজধানীতে ঈদুল আজহার দুইদিন আগে থেকেই হঠাৎ করেই গরুর সঙ্কট চলছে। হাটে পর্যাপ্ত ক্রেতা থাকলেও গরু নেই বললেই চলে। আর যে গুটি কয়েক গরু আছে বিক্রেতারা তারা দাম হাঁকরেছন দ্বিগুনের বেশি।

গাবতলী, আফতাব নগর, শনিরআখড়া, হাজারীবাগসহ রাজধানীর বিভিন্ন কোরবানির পশুর হাট ঘুরে শুক্রবার (৩১ জুলাই) এমনই চিত্র দেখা গেছে।

ক্রেতাদের অভিযোগ ব্যাপারীরা সিন্ডিকেট করে গরুর কৃত্রিম সঙ্কট তৈরি করেছেন। দুইদিন আগেও যে গরুর দাম চাওয়া হয়েছিল ৮০ হাজার টাকা, আজ তা দেড় লাখেরও বেশি হাঁকছেন ব্যাপারীরা। তবে তা মানতে একবারেই নারাজ ব্যাপারী ও বিক্রেতারা। তাদের দাবি করোনার কারণে এবার মফস্বল ও গ্রামের হাটে গরু এসেছে কম। এছাড়া গো-খাদ্যের দাম ও লালন-পালনের খরচ বাড়ায় গৃহস্থ ও খামারিদের কাছ থেকে বেশি দামে গরু কিনতে হয়েছে। তাছাড়া পথেও দীর্ঘ যানজটের ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে তাদের। এ কারণে রাজধানীতে গরুর সঙ্কট দেখা দিয়েছে।

স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংকে চাকরি করেন আলমগীর চৌধুরী। তিনি বলেন, অফিস থাকায় গত কয়েক দিনে হাটে যেতে পারিনি। বৃহস্পতিবার (৩০ জুলাই) রাতে হাটে যেয়ে গরু কিনতে না পেরে ফিরে আসি। আজ (৩১ জুলাই) ভোরে আবার শনিরআখড়ার অস্থায়ী হাটে যেয়ে অনেক কষ্টে ৮২ হাজার টাকায় একটি গরু কিনেছি। অথচ দুই-তিনদিন আগে একই সাইজের গরু লোকজনকে ৬২ থেকে ৬৫ হাজার টাকার মধ্যে কিনতে দেখেছি।

একই রকম অভিজ্ঞতার কথা জানালেন, খালিদ হাসান নামে এক ক্রেতা। তিনিও বেসরকারি চাকরিজীবী। তিনি বলেন, মঙ্গলবার যে গরুর দাম বিক্রেতারা ৯০ হাজার টাকা চেয়েছিল তা বুধবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে ১লাখ ২৫ হাজার টাকা দিয়ে কিনতে বাধ্য হয়েছি।

আফতাব নগরে আবু তাহের নামে এক ক্রেতা বলেন, প্রথমে দুটি ছাগল কোরবানি দেয়ার চিন্তা করি। সেই মতে সাড়ে ১২ হাজার টাকা দিয়ে একটা কিনেছিও। কিন্তু ছেলেদের পিঁড়াপিঁড়িতে আজ ৯২ হাজার টাকা দিয়ে যে গরু কিনলাম তার দাম কোনোমতেই ৬০ হাজার টাকার বেশি হবার কথা না। তাও শেষমেষ কিনতে পেরেছি এতেই শুকরিয়া।

এদিকে রাজধানীর সবচেয়ে বড় পশুর হাট গাবতলী ঘুরে দেখা গেছে সেখানে প্রচুর ক্রেতা আছেন, কিন্তু গরু নেই। আর সামন্য যেসব বড় আকৃতির গরু আছে কার দাম আকাশ ছোঁয়া। সাড়ে চারমণ গোশত হতে পারে এমন গরুর দাম চাওয়া হচ্ছে প্রায় পৌনে দুইলাখ টাকারও বেশি। আর বিক্রেতারা ছোট ও মাঝারী আকৃতির গরুর দাম হাঁকছেন যথাক্রমে ৮৫ হাজার ও দেড়লাখ টাকার মতো।

আগামীনিউজ/এমজামান

Dr. Neem