Agaminews
Dr. Neem Hakim

আম্পানে ক্ষতিগ্রস্থ ৫০% ব্রডব্যান্ড সংযোগ, শত কোটি টাকা ক্ষতির আশংকা


আগামী নিউজ | সাইফুল হক মিঠু প্রকাশিত: মে ২২, ২০২০, ১০:০৮ এএম
আম্পানে ক্ষতিগ্রস্থ ৫০% ব্রডব্যান্ড সংযোগ, শত কোটি টাকা ক্ষতির আশংকা

ছবি সংগৃহীত

ঢাকা: সুপার সাইক্লোন আম্পানের লন্ডভন্ড হয়েছে দেশের উপকূলীয় অঞ্চল। এতে ব্যাপক ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে দেশের ব্রডব্যান্ড সেবা। ঢাকাসহ বেশ কিছু জেলায় ব্রডব্যান্ডের লাইন বিচ্ছিন্ন হয়ে ইন্টারনেট বন্ধ হয়ে যাবার ঘটিনাও ঘটেছে। 

আইএসপি সংশ্লিষ্টরা বলছেন, আম্পানের কারণে প্রায় শত কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। বুধবার (২০ মে) বয়ে যাওয়া ঝড়ে এখন পর্যন্ত ১৬ জনের প্রাণহানির সংবাদ নিশ্চিত করেছে স্বাস্থ্য অধিদফতর। বৃহস্পতিবার (২১ মে) এক প্রেস ব্রিফিংয়ে আম্পানের কারণে প্রাথমিক ক্ষতির পরিমাণ ১১০০ কোটি বলে জানিয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান।

জানা গেছে বৃহস্পতিবার দেশের দক্ষিণ-দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল ছাড়াও রাজধানী ঢাকা ও তার আশপাশের বিভিন্ন এলাকার ইন্টারনেট বিচ্ছিন্ন হয়েছেন ৪০ লাখ ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট গ্রাহক। অঞ্চল ভেদে ৬ ঘণ্টা, ৮ ঘণ্টা ও ১২ ঘণ্টা পর্যন্ত ইন্টারনেট বিচ্ছিন্ন থাকতে হয়েছে তাদের।

ইন্টারনেট সেবাদাতাদের সংগঠন আইএসপিএবি’র মহাসচিব ইমদাদুল হক বলেন, ঝড়ে ব্রডব্যান্ডের তার ছিড়ে যাওয়া, খাম্বা উপড়ে যাওয়া সহ ব্যাপক ক্ষয় ক্ষতি হয়েছে। তবে দ্রুত পদক্ষেপ নেয়ায় ৭০ শতাংশের মতো জায়গায় ইন্টারনেট সংযোগ চালু করা গেছে।

তিনি আরো বলেন, করোনার কারণে অনেক গ্রাহক বিল দিচ্ছেনা, আবার অনেকেই সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেছেন। এর মধ্যে আম্পানের কারণে ব্রডব্যান্ড ব্যবসায়ীদের আরো বেশী ক্ষতি হয়ে গেলো। ক্ষয় ক্ষতির পরিমান শত কোটি টাকার কাছাকাছি বলেও জানান তিনি।

তিনি বলেন, যেসব স্থানে সংযোগ সচল করা সম্ভব হয়নি সেসব স্থানে গ্রাহকদের ধৈর্য ধরতে হবে। একইসঙ্গে ব্রডব্যান্ড সেবার ক্রান্তিকালে সরকারের সাহায্য প্রত্যাশা করেছি।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, আম্পানের তাণ্ডবে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে গড়ে ৬০ শতাংশ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। ঢাকার আশপাশের এলাকায় ৮০ শতাংশ সংযোগ ক্ষতিগ্রস্ত হয়। সমান ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে রেডিও সংযোগ। ফাইবার কাটা পড়েছে ৬০ শতাংশের বেশী। বাতাসের তাণ্ডবে কাঁটা পড়ে শহর ভিত্তিক ২০-৩০ শতাংশ ক্যাবল। 

আরো জানা গেছে, ঝড়ে পর অনেক জায়গায় নেটওয়ার্ক থাকলেও পাওয়ার ব্যাকআপ সমস্যাও মোকাবেলা করা কঠিন হয়ে পড়ে বলে জানিয়েছেন খাত সংশ্লিষ্টরা। 

ব্রডব্যান্ড সেবা দাতা প্রতিষ্ঠান আইসিসি কমিউনিকেশন্সের কর্ণধার সাইফুল ইসলাম বলেন, মোট সংযোগের ৫০ শতাংশই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এতে বিপুল ক্ষতি হয়েছে ব্রডব্যান্ড ব্যবসায়ীদের। সেবা অব্যাহত রাখতে নতুন করে ক্যাবল ও ইক্যুইপমেন্ট স্থাপন করতে হচ্ছে। কিন্তু কিছু কিছু এলাকায় এখনো বিদ্যুত সংযোগ পুনঃস্থাপিত না হওয়ায় লাইন আপ করার পরেও অনেকেই এখনো ইন্টারনেট সংযোগ পাচ্ছেন না।

এদিকে, আম্পানের তাণ্ডবে দেশের উপকূলের ২৫ জেলার কমপক্ষে ২০ লাখের বেশি গ্রাহক বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছেন বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন উন্নয়ন বোর্ড।

আগামীনিউজ/মিঠু/মিজান 

Dr. Neem