Agaminews
Dr. Neem Hakim

করোনাভাইরাস নিয়ে ড. নিম হাকিমের ফেসবুক পোস্ট 


আগামী নিউজ | নিজস্ব প্রতিবেদক   প্রকাশিত: মার্চ ৩১, ২০২০, ০৯:০৬ পিএম
করোনাভাইরাস নিয়ে ড. নিম হাকিমের ফেসবুক পোস্ট 

ঢাকা: বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাস সংক্রমনের পর থেকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে নানা ধরণের উপদেশ মূলক বক্তব্য দিয়েছেন বিভিন্ন বিষয়ে বিশেষজ্ঞ ব্যক্তি ও গবেষকরা। এমনই একজন ব্যক্তি হলেন ড. নিম হাকিম। যিনি ৪০ বছরের বেশি সময় ধরে নিমসহ অন্যান্য ভেষজ নিয়ে গবেষণা করছেন-  আগামী নিউজ পাঠকদের জন্য ড. নিম হাকিমের ৮ মার্চ ২০২০ থেকে দেওয়া কিছু ফেসবুক স্ট্যাটাস তুলে ধরা হলো -


০৮ মার্চ ২০২০: করোনাভাইরাস রোধে জনসমাবেশ এড়িয়ে চলুন, প্রাকৃতিক এন্টি ভাইরাল উপাদান সেবন করুন (উদ্ভিদ জাতীয় খাবার)। 

করোনাভাইরাস নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। প্রাকৃতিক এন্টি ভাইরাল যুক্ত খাবার খান,এন্টি ভাইরাল যুক্তসাবান দিয়ে হাত পরিষ্কার রাখুন। 

০৯ মার্চ ২০২০: নিম (Azadirachta indica.A .Juss) প্রাকৃতিক এন্টি ভাইরাল সমৃদ্ধ, করোনা প্রতিরোধে  উপকার হতে পারে।

১১ মার্চ ২০২০: করোনাভাইরাসে দেশে বড় ধরণের বিপযর্য়ের আশঙ্কা নেই। তাই অযথা আতঙ্কিত হবেন না। আমাদের শরীর অন্য দেশের চেয়ে অনেক বেশি ভাইরাস প্রতিরোধী।
    
১৭ মার্চ ২০২০: করোনাভাইরাসে মানবিক বিপযর্য়ের সময়ে সরকারকে দোষারোপ না  করে, মানুষের পাশে দাঁড়ান। এ নিয়ে রাজনীতি করবেন না।  

করোনাভাইরাস এড়াতে হাতে কাপড়ের রুমাল রাখুন, জনসমাবেশে গেলে রুমাল দিয়ে মুখ, নাক ঢেকে রাখুন।

১৯ মার্চ ২০২০: মানুষ যখন ধর্মীয় বিধিবিধান অবজ্ঞা করে পাপাচারে লিপ্ত হয়, তখন নানা রকম রোাগব্যাধীতে আক্রান্ত হয়। এটাই প্রকৃতির অমোঘ নিয়ম।  

২১ মার্চ ২০২০: করোনা প্রতিরোধে শারীরের রোগ প্রতিরোধ  ক্ষমতা বৃদ্ধি করে এমন খাবার খান।

২৩ মার্চ ২০২০: করোনার এই সময়েনিজ গন্ডি বা এলাকাছেড়ে অন্য এলাকায় যাবেন না, অন্য এলাকার কাউকে এলাকায় ঢুকতে দেবেন না। 

২৪ মার্চ ২০২০: পারমা কেয়ার করোনা প্যাকেজ- নিম চা সকালে খালি পেটে ১ কাপ, দুপুরে খাবার পরে রোজেলি চা ১ কাপ, রাতে ১ কাপ তুলশি চা। নিম সাবানে হাত ধুয়ে পরিষ্কার হওয়া। 

খাঁটি মধু শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। অধিক নিরাপত্তার জন্য নিম সাবান দিয়ে হাত ধুতে পারেন। 

নিম পাতার রস বা চা, তুলসি পাতার রস বা  চা, লেবুর রস,বাদাম, কাজু বাদাম, রোজেলি চা (অতি মাত্রায় ভিটামিন সি ) খেতে পারেন।    
   
২৫ মার্চ ২০২০: শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধির গবেষণা না করে, বৈজ্ঞানিকেরা ঔষধ গবেষণায় মনোযোগী কেন?

করোনার চেয়েও ভয়াবহ ভাইরাস আসতে পারে ভবিষ্যতে, তাই করোনা প্রতিরোধে শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ান। 

যারা ঝুঁকি নিয়ে বাড়ি ফিরছেন, তাঁরা করোনার ঝুঁকি আরো বাড়িয়ে দিচ্ছেন। 

২৭ মার্চ ২০২০: যে নিজে সতর্ক নয়, দেহ রক্ষী তার জীবন রক্ষা করতে পারে না - হযরত আলী (রা) 

আগুনে হাতদিলে হাত পুড়বে, পানিতে পা দিলে পা ভিজবে,  এটাই প্রকৃতির বিধান। 

সংক্রামক রোগের সময় এবাদত খানায় যেতে হবে। এমন বিধান কী কোনো ধর্মে আছে?

করোনার এই সময়ে জান বাঁচানো ফরজ না মসজিদ, মন্দির আর গির্জায় গিয়ে এবাদত করা ফরজ? 

২৮ মার্চ ২০২০: করোনা ঠেকাতে যেসব জিনিস বারেবারে ছোঁয়া হয়- যেমন দরজার হাতল, মোবাইল, লিফটের বাটন ইত্যাদি ভাইরাস নাশক দিয়ে মুছে রাখুন।

২৯ মার্চ ২০২০: করোনার এই দুযোর্গে  জনপ্রতিনিধি রাজনৈতিক ও ধমর্ীয় নেতারা কাথায়, তাঁরা পাশে নেই কেনো?

করোনা নিয়ে যারা গুজব ছড়াচ্ছে, আর যারা মুনাফাখোর, দ্রব্য সমগ্রীর মূল্য বাড়াচ্ছে তাদের সামাজিকভাবে বয়কট করুন। 

করোনা মোকাবেলায় ইউরোপ-আমেরিকার চেয়ে সরকারের প্রস্তুতির মাত্রা ও দ্রুত প্রতিরোধ মূলক ব্যবস্থা নেওয়ার সক্ষমতা আছে। আতঙ্কিত হবেন না। 

সোশ্যাল মিডিয়া আর টক শো তে কত যে করোনা বিজ্ঞানী,  তারা কেনো সবাই এক হয়ে করোানা প্রতিরোধে নামছে না।

৩০ মার্চ ২০২০: সোশ্যাল মিডিয়ার গুজবে কান দেবেন না,  নিজে সতর্ক থাকুন,  অন্যকে সতর্ক থাকতে বলুন।   

তাপমাত্রা বৃদ্ধি, জানসংখ্যার অর্ধেকের বয়স ৩৫ বছরের মধ্যে। সরকারের প্রস্তুতি আর আমাদের শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতায় প্রতিরোধ করবো।

আমার বিশ্বাস করোনা মহামারির রুপ নেবে না। 

৩১ মার্চ ২০২০: করোনায় ফুসফুস আক্রান্ত হয়। ধুমপানে ফুসফুস দুবর্ল হয়। তাই ধুমপায়ীদের ক্ষতির ঝুঁকি বেশি। আপাতত ধুমপান থেকে বিরত থাকুন। 


সংগৃহীত: ড. নিম হাকিমের ফেসবুক পাতা থেকে। 

 
আগামী নিউজ/তরিকুল/নাঈম

Dr. Neem