Dr. Neem
Dr. Neem Hakim

জাপানে থাকা ছোট মেয়েকে দেশে ফেরাতে হাইকোর্টে বাবার রিট


আগামী নিউজ | ডেস্ক রিপোর্ট প্রকাশিত: অক্টোবর ২১, ২০২১, ০১:৫৫ পিএম
জাপানে থাকা ছোট মেয়েকে দেশে ফেরাতে হাইকোর্টে বাবার রিট

ছবিঃ সংগৃহীত

ঢাকাঃ বাংলাদেশি বাবা ইমরান শরীফ ও জাপানি মা নাকানো এরিকোর জাপানে থাকা তৃতীয় সন্তানকে আদালতে হাজির করার নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়েছে। শিশুদের বাবা ইমরান শরীফ এ রিট দায়ের করেছেন।

বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্ট বেঞ্চে এই রিট আবেদনটি শুনানির জন্য কার্যতালিকায় রয়েছে।

ইমরান শরীফের অন্যতম আইনজীবী ব্যারিস্টার কাজী মারুফুল আলম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, দুই সপ্তাহ আগে এ বিষয়ে আবেদন করা হয়। জাপানি নাগরিক মা নাকানো এরিকো বাংলাদেশের আইনের আওতায় এসে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন। কিন্তু তিনি তার এক শিশুকে লুকিয়ে রেখেছেন।
তৃতীয় শিশু জাপানে আছে কি না, জানতে চাইলে এ আইনজীবী আরও বলেন, ওই শিশু কোথায় আছে আমরা জানি না। আমরা শুধু জানি, শিশুটিকে লুকিয়ে রেখেছেন তার মা। তাই আমরা রিট আবেদনটি করেছি। যাতে ওই শিশুকে আদালতে উপস্থিত করা হয়।

এর আগে বড় ও মেজ মেয়েকে হাইকোর্টে হাজির করানোর নির্দেশনা চেয়ে রিট করেছিলেন ইমরান শরীফের স্ত্রী জাপানি নাগরিক ডা. এরিকো নাকানো। এখন রাজধানীর গুলশানের একটি ভাড়া বাসায় দিন-রাত পর্যায়ক্রমে সন্তানদের দেখাশোনা করছেন তাঁদের বাবা-মা। 

এদিকে গত ৩০ সেপ্টেম্বর হাইকোর্ট আদেশ দেন, রাজধানীর গুলশানের ফ্লাটে দুই শিশু জেসমিন মালিকা ও লাইলা লিনার সঙ্গে জাপানি নাগরিক মা নাকানো এরিকো রাতসহ ২৪ ঘণ্টা থাকবেন। বাবা ইমরান শরীফ শুধু দিনে সন্তানদের সঙ্গে দেখা করতে পারবেন। এই সময়ে ওই ফ্লাটের ভাড়া শিশুদের বাবা-মাকে সমানভাবে বহন করতে হবে।

বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

গত ১৬ সেপ্টেম্বর জাপানি শিশুদের নিয়ে বাবা-মাকে সমঝোতার সুযোগ দিয়েছিলেন আদালত। ওই দিন ২৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এই মামলা মুলতবি করেছিলেন আদালত। এ সময়ে পর্যায়ক্রমে গুলশানের বাসায় একদিন করে মা ও একদিন করে বাবা শিশুদের সঙ্গে থাকার কথা বলা হয়

গত ৩১ আগস্ট হাইকোর্ট আদেশ দেন বাবা-মাসহ রাজধানীর গুলশানের চার কক্ষবিশিষ্ট একটি বাসায় থাকবে জাপানি দুই শিশু জেসমিন মালিকা ও লাইলা লিনা। সেখানে তারা আপাতত ১৫ দিন থাকবে। ফ্লাটের ভাড়া উভয়পক্ষ বহন করবে।

সমাজসেবা অধিদফতরের ঢাকার ডেপুটি ডিরেক্টর তাদের তত্ত্বাবধান করবেন। প্রয়োজনে এ কর্মকর্তা ওই ফ্ল্যাটে রাত্রিযাপন করতে পারবেন। গুলশানের বাসায় থাকাকালীন তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ঢাকা মহানগর পুলিশ ও পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগকে (সিআইডি) বলা হয়।

এরপর গত ৮ সেপ্টেম্বর দুই মেয়েকে নিয়ে বাধাহীনভাবে উন্মুক্ত পরিবেশে চলাচল ও রাতে তাদের সঙ্গে ঘুমানোর অনুমতি পান জাপানি নাগরিক নাকানো এরিকো। আর বাবা দুই শিশুর সঙ্গে দিনের বেলায় থাকতে পারবেন বলে আদেশ দেন হাইকোর্ট।

আদেশে আদালত বলেন, বাবা-মা দুজনই তাদের শিশুদের নিয়ে বাইরে যেতে ও কেনাকাটা করতে পারবেন। এছাড়াও ফ্ল্যাটের ভেতরে স্থাপন করা সিসি ক্যামেরা অপসারণ করতে হবে। তবে বাসার বাইরে সিসি ক্যামেরা থাকতে পারে।

২০০৮ সালে জাপানি চিকিৎসক নাকানো এরিকো ও বাংলাদেশি-আমেরিকান নাগরিক শরীফ ইমরান (৫৮) জাপানি আইন অনুযায়ী বিয়ে করেন। এরপর টোকিওতে বসবাস করেন। তাদের ১২ বছরের সংসারে তিন কন্যা সন্তান জন্ম নেয়। ২০২১ সালের ১৮ই জানুয়ারি শরীফ ইমরান-এরিকোর বিবাহ বিচ্ছেদ হয়।

আগামীনিউজ/বুরহান