Agaminews
 অমর একুশে
Dr. Neem Hakim

তরুণদের প্রতি ওয়ারেন বাফেটের ১০ পরামর্শ


আগামী নিউজ | ক্যারিয়ার ডেস্ক প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২১, ১১:১১ এএম
তরুণদের প্রতি ওয়ারেন বাফেটের ১০ পরামর্শ

ছবি: সংগৃহীত

ঢাকাঃ ওয়ারেন এডওয়ার্ড বাফেট, মার্কিন ‘বিজনেস ম্যাগনেট’, উদ্যোক্তা এবং সমাজকর্মী। বাফেটকে বিশ্বের সবচেয়ে সফল উদ্যোক্তাদের মাঝে একজন হিসেবে বিবেচনা করা হয়। বিশ্বের অন্যতম ধনী এই ব্যক্তি ২০১২ সালে টাইম ম্যাগাজিনে সর্বোচ্চ প্রভাবশালী ব্যাক্তি হিসেবে নাম লিখিয়েছেন। জীবনে সফল হতে গিয়ে বাফেট যা উপলব্ধি করেছেন, তার উপর ভিত্তি করেই তিনি তরুণ উদ্যোক্তা এবং বিনিয়োগকারীদের প্রতি কিছু বিখ্যাত উপদেশ দিয়েছেন। 

উদ্যোক্তাদের জন্য বাফেটের ১০ পরামর্শ

১. পড়ুন এবং ভাবুন: বাফেট বলেন, আমি মনে করি প্রতিদিন অবশ্যই কিছু কিছু সময় বসে বসে ভাবা উচিত। যদিও মার্কিন ব্যবসায় এটি খুব অস্বাভাবিক। আমি প্রচুর পড়ি এবং ভাবি। ব্যবসায়ে বেশির ভাগ মানুষের চেয়ে কম প্ররোচিত সিদ্ধান্ত নিই আমি। আমি এটি করি কারণ আমি এই জাতীয় জীবন পছন্দ করি।

২. ভাবুন ভাবুন এবং ভাবুন: বাফেটের খুব মূল্যবান একটি পরামর্শ হলো—একটি চমৎকার কোম্পানি ন্যায্যমূল্যে কেনার চেয়ে একটি ন্যায্য কোম্পানি চমৎকার দাম দিয়ে কেনা ভালো।

৩. ব্যবসায়ের মৌলিক বিষয় সব সময় মনে রাখতে হবে: এ বিষয়ে ওয়ারেন বলেন, ‘মূল্য হলো যা তুমি পরিশোধ করছ। মান হলো যা তুমি পাচ্ছ।’

৪. স্মার্ট ও বাস্তববাদী হতে হবে: বাফেট বলেন, আমি এমন ব্যবসাগুলোর শেয়ার কেনার চেষ্টা করি যা এতই দুর্দান্ত যে একজন নির্বোধও তাদের চালাতে পারবে।

৫. কথার কথা বলবেন না যতক্ষণ না কাজটি করতে পারেন: বাফেট বলেন, স্রোতের টানে কার সব ভেসে গেল তা স্রোত সরে যাওয়ার পরেই বোঝা যায়। তাই কাজ করার আগে অযথা অহমিকা নয়।

৬. মনুষ্যত্ব মানুষ তৈরি করে: মানুষের আত্মিক সততা তার কাজেও প্রতিফলিত হয়। বাফেট বলেন, একজন খারাপ মানুষ হয়ে একটি ভালো চুক্তি আপনি করতে পারবেন না।

৭. সত্যিকারের ভালো মানুষ হন: খুব মূল্যবান একটি মন্তব্য আছে বাফেটের যা বিশ্বের সব সময়ের জন্যই প্রযোজ্য। বাফেট বলেন, সম্মান তৈরি করতে ২০ বছরও লেগে যায়, ভাঙতে ৫ মিনিটও লাগে না। এটা যদি আপনি ভাবেন তাহলে আপনি আলাদাভাবেই জীবন চালাবেন।

৮. কোনটি আসলেই মূল্যবান তা সম্পর্কে জানুন: বাফেট বলেন, স্বাস্থ্যের পরে আমি যে সম্পদটি সবচেয়ে বেশি মূল্যবান বলে মনে করি তা হলো আকর্ষণীয়, বিচিত্র এবং দীর্ঘস্থায়ী বন্ধু।

৯. কখন গোটাতে হবে জানুন: যদি নিজেকে কোনো গর্তে খুঁজে পান তবে সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ কাজটি হলো খনন বন্ধ করা।

১০. এগিয়ে যাও: কোনো কাজ শুরুর আগে অবশ্যই নিজের ওপর বিশ্বাস রাখতে হবে।  তিনি বলেন, আমি সব সময় জানতাম আমি বড়লোক হব। এ বিষয়ে কখনো আমার বিন্দুমাত্র সন্দেহ ছিল না।

আগামীনিউজ/সোহেল