Agaminews
Dr. Neem
Dr. Neem Hakim

পুদিনা


আগামী নিউজ | ডঃ নিম হাকিম প্রকাশিত: এপ্রিল ১২, ২০২১, ০৫:১০ পিএম
পুদিনা

ছবিঃ সংগৃহীত

পরিচিতিঃ (Botanical Name: Mentha arvensis Linn., Common Name: Pudina, English Name: Mint, Family Name: Labiatae)

পুদিনা বর্ষজীবী অতিশয় উগ্র গন্ধবিশিষ্ট বীরুৎ জাতীয় উদ্ভিদ। এর অনেকগুলো প্রজাতি আছে। পুদিনা পাতা উজ্জ্বল সবুজ বর্ণের, কিনারা করাতের মত কাটা, পরু এবং কোমল অগ্রভাগ সরু। ফুল ছোট, সাদা ও গুচ্ছাকার হয়। তবে পুদিনার ফুল কমই হয়ে থাকে। পুদিনা গাছ, পাতা ও তেল ব্যবহার হয়। আমাদের দেশে পুদিনা সাধারণত তিন প্রকারঃ ১) পাহাড়ী পুদিনা ২) জংলী পুদিনা ৩) জলজ পুদিনা।

প্রাপ্তিস্থানঃ পুদিনার আদি নিবাস ইউরোপ্ ও এশিয়া। বর্তমানে পৃথিবীর প্রায় সব দেশেই এর চাষ হতে দেখা যায়। পৃথিবীতে এর প্রায় ২৫ প্রজাতি আছে।

চাষাবাদঃ সেঁচের ব্যবস্থা থাকলে বছরের যে কোন সময় পুদিনা চাষ করা যায়। তবে সাধারণত বর্ষাকালে ভেজা ও স্যাঁতস্যাঁতে মাটিতে মূলসহ কান্ডের গোড়ার অংশ লাগাতে হয়।

লাগানোর দূরত্বঃ ৬-৮ ইঞ্চি।

উপযোগী মাটিঃ সব ধরনের মাটিতে জন্মে।

বীজ আহরণঃ প্রযোজ্য নয়। অঙ্গজ প্রজননের মাধ্যমে বংশ বিস্তার ঘটে।

প্রক্রিয়াজাতকরণ/সংরক্ষণঃ পুদিনা পাতা কাঁচা ব্যবহার করাই ভালো। পুদিনা গাছ পাতাসহ উঠিয়ে ভালভাবে ধুয়ে ছোট ছোট করে কেটে রৌদ্রে শুকিয়ে নিতে হবে। এরপর তা শুষ্ক জায়গায় সংরক্ষণ করতে হবে। এভাবে এক বছর পর্যন্ত সংরক্ষণ করা যায়।

ব্যবহার্য অংশঃ পাতা/সমস্ত গাছ।

উপকারিতা/লোকজ ব্যবহারঃ পুদিনা হজমকারক ও হিক্কা নিবারক। কামলা রোগ দূর করে ও কুষ্ঠ রোগে উপকারি। পুদিনা পোড়া ছাই দাঁতের মাড়ি শক্ত করে । মধু ও লবণের সঙ্গে খেলে কৃমি দূর হয়।

কোন কোন অংশ কিভাবে ব্যবহার হয়ঃ

  • হজমে সমস্যা হলে ২/৩ চামচ পুদিনার রস খাবারের পরে দিনে ২ বার বিট লবণসহ খেতে হবে।
  • সর্দি হলে সামান্য পরিমাণে পুদিনা বেটে এক ছটাক পানিতে গুলে খেলে বিশেষ উপকার পাওয়া যায়।
  • অরুচি হলে পুদিনা বেটে লবণ মিশিয়ে খাবারের সঙ্গে খেলে অরুচি দূর হয়। পুদিনার চাটনিও বিশেষ মুখরোচক।
  • বমি বমি ভাব হলে পুদিনা বেটে সামান্য লবনসহ খেলে  বমি বমি ভাব দূর হয়।

পরিপক্ক হওয়ার সময়কালঃ সাধারণত ৪ থেকে ৫ মাসেই পুদিনা ব্যবহার উপযোগী হয়।

অন্যান্য ব্যবহারঃ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে উন্নতমানের ক্যান্ডি তৈরিতে পুদিনা ব্যবহার হয়। বর্তমানে বিভিন্ন প্রসাধনী প্রস্তুতে পুদিনার ব্যবহার দেখা যায়। এছাড়াও পৃথিবী ব্যাপী পুদিনা বেশী ব্যবহৃত হয় সালাদ তৈরীতে। বাংলাদেশে সালাদ- এ পুদিনার ব্যবহারসহ পুদিনার চাটনির বেশ কদর রয়েছে।

আয়ঃ প্রতি একর জমিতে পুদিনা চাষ করে বছরে ৭০,০০০ থেকে ৯০,০০০ টাকা আয় করা সম্ভব।

আগামীনিউজ/নাসির