Agaminews
Bangla Noboborsho
Dr. Neem Hakim

বিপদ বাড়াচ্ছে করোনার দ. আফ্রিকার ধরন


আগামী নিউজ | ডেস্ক রিপোর্ট প্রকাশিত: এপ্রিল ৮, ২০২১, ১০:২৬ এএম
বিপদ বাড়াচ্ছে করোনার দ. আফ্রিকার ধরন

প্রতীকী ছবি

ঢাকাঃ দেশে হঠাৎ করেই বেড়ে গেছে করোনার সংক্রমণ। সনাক্ত ও মৃত্যু লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। করোনা পরিস্থিতির এমন অবনমনের পেছনে রয়েছে ভাইরাসটির দক্ষিণ আফ্রিকার ধরন (ভ্যারিয়েন্ট)। অন্তত এমন তথ্যই জানিয়েছে আন্তর্জাতিক উদরাময় গবেষণা কেন্দ্র, বাংলাদেশ (আইসিডিডিআরবি)।

সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সঙ্গে আইসিডিডিআরবি’র যৌথ গবেষণায় দক্ষিণ আফ্রিকার ধরনটির বিস্তারের চিত্র উঠে এসেছে।

গবেষণার হালনাগাদ সর্বশেষ ফলাফল বুধবার আইসিডিডিআরবির ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়েছে। সেখানে দেখা যায়, এই মুহূর্তে দেশে দক্ষিণ আফ্রিকা ধরনের উপস্থিতি সবচেয়ে বেশি।

তাতে উঠে এসেছে, মার্চের দ্বিতীয় সপ্তাহ পর্যন্ত বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের যুক্তরাজ্যের ধরনটির সক্রিয়তা বাড়ছিল। সে সময় সক্রিয় সবগুলো ধরনের মধ্যে ৫২ শতাংশ ছিল ইউকে ভ্যারিয়েন্ট। মার্চের শেষ সপ্তাহে সক্রিয় সবগুলো ধরনের মধ্যে ৮১ শতাংশ ছিলই ছিল আফ্রিকার ভ্যারিয়েন্ট। দক্ষিণ আফ্রিকার ভ্যারিয়েন্ট (B.1.351) এবং ব্রাজিলের ভ্যারিয়েন্ট (P1/P2) বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে পড়তে থাকে।

আইসিডিডিআরবি বলছে, দক্ষিণ আফ্রিকার ভ্যারিয়েন্ট (B.1.351) এই তিনটি ধরনেরই সংক্রমণ ঘটানোর সক্ষমতা বেশি; জিনগত পরিবর্তনও ঘটেছে বেশি, যা রোগীর চিকিৎসা পদ্ধতি এবং টিকার কার্যকারিতার ওপরও প্রভাব ফেলতে পারে।

জিনোমিক রিসার্চ ল্যাবরেটরি জানায়, দক্ষিণ আফ্রিকার এই ধরন ‘এন ৫০১ ওয়াই’ নামের একটি মিউটেশন (রূপান্তর) বহন করে, যা এটিকে আরও সংক্রমণ বা ছড়িয়ে পড়তে সাহায্য করে। এই ভাইরাসের আরেকটি মিউটেশন ‘ই৪৮৪কে’ আরও ভয়াবহ। এটি টিকার কার্যকারিতাকে প্রভাবিত করতে পারে। ফলে করোনার এই ধরন যত ছড়িয়ে পড়বে, ততই সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার ঝুঁকি বাড়বে।

আগামীনিউজ/নাসির