Agaminews
Dr. Neem Hakim

সাড়ে ১০ হাজার পরিবারকে ঈদ উপহার বসুন্ধরা চেয়ারম্যানের


আগামী নিউজ | নিউজ ডেস্ক প্রকাশিত: মে ২৩, ২০২০, ০৩:৫৯ এএম
সাড়ে ১০ হাজার পরিবারকে ঈদ উপহার বসুন্ধরা চেয়ারম্যানের

ছবি: বাংলাদেশ প্রতিদিন

বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার আশপাশ ও রূপগঞ্জ-মানিকগঞ্জের দরিদ্র মানুষের জন্য জনপ্রতিনিধিদের হাতে বসুন্ধরা গ্রুপ চেয়ারম্যানের পক্ষ থেকে ঈদ উপহার তুলে দেওয়া হয় -বাংলাদেশ প্রতিদিন

করোনা দুর্যোগে চলমান সহায়তা কর্মসূচির পাশাপাশি এবার ঈদুল ফিতর সামনে রেখে ১০ হাজার ৫০০ দরিদ্র পরিবারকে ঈদ উপহার পাঠালেন দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্পগোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহান। রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার আশপাশের বিভিন্ন ওয়ার্ড ও পাশের নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ এবং মানিকগঞ্জের দরিদ্র মানুষের মধ্যে বিতরণের জন্য গতকাল এসব ঈদ উপহার স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের হাতে তুলে দেওয়া হয়। জনপ্রতিনিধিরা বলেন, বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান সব সময় বিপদে-আপদে আমাদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন। করোনা পরিস্থিতির শুরু থেকেই খাদ্যসহায়তা দিয়ে আসছেন। তাঁর নির্দেশমতো আমরা তালিকা ধরে ধরে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে এসব ঈদ উপহার দ্রুততম সময়ে দরিদ্র পরিবারগুলোয় পৌঁছে দেব।

প্রতিটি দরিদ্র পরিবারকে দেওয়া বসুন্ধরা চেয়ারম্যানের এসব ঈদ উপহারের মধ্যে ছিল ভোজ্যতেল ১ লিটার, চিনিগুঁড়া চাল ২ কেজি, মিনিকেট চাল ৩ কেজি, আটা ২ কেজি, সেমাই ১ প্যাকেট ও চিনি ১ কেজি। ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরা (আইসিসিবি) থেকে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) আওতাধীন ছয়টি ওয়ার্ডের (১৭, ১৮, ৩৯, ৪০, ৪২ ও ৪৩) কাউন্সিলর ও তাদের প্রতিনিধিরা এসব উপহারসামগ্রী বুঝে নেন। এ ছাড়া ঈদ উপহারের একটি অংশ পাশের রূপগঞ্জ ও মানিকগঞ্জের দরিদ্র মানুষের মধ্যে বিতরণের জন্য সেখানকার জনপ্রতিনিধিদের হাতে তুলে দেওয়া হয়। রূপগঞ্জে বসুন্ধরা চেয়ারম্যানের পক্ষে ঈদ উপহারসামগ্রী বিতরণ করেন কায়েতপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ ও রংধনু গ্রুপের চেয়ারম্যান আলহাজ রফিকুল ইসলাম রফিক।

আহমেদ আকবর সোবহানের পক্ষে আইসিসিবির প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা এম এম জসীম উদ্দিন কাউন্সিলরদের হাতে ঈদ উপহারসামগ্রী তুলে দেওয়ার সময় বলেন, এগুলো আমাদের মাননীয় চেয়ারম্যান স্যারের পক্ষ থেকে ঈদ উপহার। করোনা পরিস্থিতির শুরু থেকেই চেয়ারম্যান স্যারের নির্দেশে বসুন্ধরা গ্রুপের পক্ষ থেকে সারা দেশে অসহায়-দরিদ্রদের খাদ্যসহায়তা দেওয়া হচ্ছে। আজকের ১০ হাজার ৫০০ প্যাকেট ঈদ উপহার সেই সহায়তার বাইরে। এটা ঈদ উপলক্ষে বসুন্ধরার আশপাশের মানুষকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে দেওয়া হচ্ছে। আর লকডাউনের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত এসব খাদ্যসামগ্রীর সব প্যাকেজিং আইসিসিবির কর্মীরা স্বেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে করে আসছেন।
বিতরণের জন্য ঈদ উপহার নিতে এসে ডিএনসিসির ৪২ নম্বর ওয়ার্ডের (বেরাইদ) কাউন্সিলর আইয়ুব আনছার মিন্টু বলেন, আমি বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যানের কাছে কৃতজ্ঞ যে, তাকে বিপদে-আপদে সব সময় আমাদের পাশে পেয়েছি। যে কোনো খারাপ পরিস্থিতিতে তিনি ঢাল হয়ে আমাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন। এর আগেও করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় বসুন্ধরা চেয়ারম্যান আমার এলাকার অসহায় মানুষের জন্য ৫০০ প্যাকেট খাদ্যসহায়তা দিয়েছেন। আজ আবার এলাকার অসহায় মানুষের জন্য ঈদ উপহার পেলাম। সর্বোচ্চ নিরাপত্তার সঙ্গে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে এগুলো বিতরণ করব।

এদিকে ৪০ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলরের পক্ষে উপহারসামগ্রী বুঝে নেন তার ভাগ্নে আতাউর রহমান ঢালী ও হাজী মোশারফ হোসেন খন্দকার। তারা বলেন, এর আগেও বসুন্ধরার দেওয়া খাদ্যসহায়তা দরিদ্রদের মধ্যে বিতরণ করেছি। তালিকা আগেই করা আছে। তার পরও এর আগে কারা পেয়েছেন আর কারা পাননি তা দেখে নতুন তালিকা করা হবে। কেউ একাধিকবার পেল আর কেউ একেবারও পেল না এমন যেন না হয়, তা বিবেচনা করা হবে।

প্রসঙ্গত, করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে প্রথম থেকেই দেশ ও মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে বসুন্ধরা গ্রুপ। গ্রুপটির চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহানের নির্দেশে রাজধানী ঢাকাসহ সারা দেশের কয়েক লাখ অসহায় মানুষকে খাদ্যসহায়তা দেওয়া হয়েছে। বিপর্যয় না যাওয়া পর্যন্ত এ সহায়তা অব্যাহত থাকবে বলে জানানো হয়েছে। গ্রুপটির পক্ষ থেকে প্রতিদিন ইফতার করানো হচ্ছে পুলিশসহ কয়েক হাজার নিম্ন আয়ের মানুষকে। এ ছাড়া হাসপাতাল নির্মাণে সহযোগিতাসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষকে বিভিন্নভাবে সহায়তা করে যাচ্ছে বসুন্ধরা গ্রুপ। সূত্র: বাংলাদেশ প্রতিদিন।

আগামীনিউজ/বিজয়
 

Dr. Neem