Dr. Neem
Dr. Neem Hakim

বছরের শুরুতে শ্রেণিকক্ষে পাঠদান পুরোপুরি সম্ভব না: শিক্ষামন্ত্রী


আগামী নিউজ | ডেস্ক রিপোর্ট প্রকাশিত: নভেম্বর ১৬, ২০২১, ০৫:১১ পিএম
বছরের শুরুতে শ্রেণিকক্ষে পাঠদান পুরোপুরি সম্ভব না: শিক্ষামন্ত্রী

ফাইল ছবি

ঢাকাঃ করোনা মহামারির কারণে দেরিতে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় অংশ নেয়া শিক্ষার্থীদের ক্ষতির বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

তিনি বলেন, আগামী বছরের শুরুতে শ্রেণিকক্ষে পাঠদান পুরোপুরিভাবে সম্ভব না হলেও এ বছরের তুলনায় বৃদ্ধি করা হবে। আমরা চেষ্টা করছি, সকল শিক্ষার্থীকে টিকার আওতায় আনার। পরিস্থিতির উন্নতি হলে সবকিছু আগের মতো স্বাভাবিক হবে।

এর সঙ্গে যোগ করেন, অতি দ্রুত সময়ের মধ্যে ২২ লাখ পরীক্ষার্থীকে টিকার আওতায় নেওয়ার চেষ্টা চলছে। মঙ্গলবার (১৬ নভেম্বর) সকালে চাঁদপুরে পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন শেষে এ কথা জানান শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

ভুল প্রশ্নপত্রে পরীক্ষার ব্যাপারে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, সারাদেশে ৫২ হাজার কক্ষে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার আয়োজন করা হয়েছে। এসব কক্ষের মধ্যে ১৫টিতে পরীক্ষার প্রথমদিন কক্ষে ভুল প্রশ্নপত্র বিতরণ করা হয়। ভুলটি হয়েছে নিয়মিত ও অনিয়মিত পরীক্ষার্থীদের জন্য করা প্রশ্ন আলাদা না করে বিতরণের কারণে। বিতরণের আগে একবার দেখা হলে এ ভুল হতো না। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। কোনো শিক্ষকের অমনোযোগিতা ধরা পড়লে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। তবে ভুল প্রশ্নে পরীক্ষা দেয়া কোনো পরীক্ষার্থী ক্ষতিগ্রস্ত হবে না। সেসব খাতা আলাদা করে বিশেষভাবে মূল্যায়ন করা হবে।

মন্ত্রী আরও বলেন, এখন পরীক্ষা দিতে যত সময় দেরি হয়েছে তা পরবর্তীতে আমরা সমন্বয় করব। কারও অসুবিধা হবে না। তবে আগামী বছরের যে পরীক্ষাগুলো একেবারে যথাসময়ে নেওয়ার কোনো সুযোগ নেই। তবে এ বছরের মতো এত দেরি হবে না।

আগামীনিউজ/নাসির