Dr. Neem on Daraz
Dr. Neem Hakim

হঠাৎ পেঁয়াজের দাম বেড়েছে কেজিতে ২০ টাকা


আগামী নিউজ | ডেস্ক রিপোর্ট প্রকাশিত: ডিসেম্বর ১০, ২০২১, ০৪:৩৫ পিএম
হঠাৎ পেঁয়াজের দাম বেড়েছে কেজিতে ২০ টাকা

ফাইল ছবি

ঢাকাঃ ফের কি পেঁয়াজ নিয়ে লঙ্কাকান্ড ঘটতে যাচ্ছে? এমন আশঙ্কা ভোক্তাদের। আচমকা দুদিনেই রাজধানীতে কেজিতে পিয়াজের দাম বেড়েছে প্রায় ২০ টাকা। পেঁয়াজের দাম বাড়ার কারণ হিসেবে ব্যবসায়ীরা পুরাতন পেঁয়াজের মজুদ শেষ হওয়াকে দায়ী করছেন।

শুক্রবার (১০ ডিসেম্বর) রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, দেশে পুরাতন দেশি পিয়াজের মজুত ফুরিয়ে আসায় দাম বাড়ছে। এছাড়া সামুদ্রিক ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদের কারণে তিনদিন প্রচুর বৃষ্টিপাতের ফলে দেশের বেশ কয়েকটি অঞ্চলে মুড়ি কাটা পিয়াজক্ষেত বৃষ্টির পানিতে ডুবে গেছে। এতে পাইকারি বাজারে পিয়াজের সরবরাহ কমেছে। আমদানিকারকরা বলছেন, পেঁয়াজ আমদানির গতি কিছুটা কম। কমলেও বন্ধ হয়নি।

হুট করে বাজার পেঁয়াজের দাম অস্বাভাবিক বেড়ে যাওয়ায় সমস্যায় পড়েছেন নিম্নআয়ের মানুষ। তাদের ক্রয় ক্ষমতার নাগালের বাইরে চলে গেছে। টিসিবির হিসেবেও গত একদিনে ৪টি পণ্যে দাম বেড়েছে। এর মধ্যে পেঁয়াজ (দেশি) দাম প্রতি কেজিতে বেড়েছে ৩৮ শতাংশ। বৃহস্পতিবার এই পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ৬৫ থেকে ৮০ টাকা। আর একদিন আগে ছিল ৫০ থেকে ৫৫ টাকা। পাশাপাশি পেঁয়াজ (আমদানি) দাম প্রতি কেজিতে বেড়েছে ২৯ শতাংশ।

বৃহস্পতিবার এই পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ৫০ থেকে ৬০ টাকা। আর একদিন আগে ছিল ৪০ থেকে ৪৫ টাকা। রসুন (দেশি) দাম প্রতি কেজিতে বেড়েছে ৩৩.৩৩ শতাংশ। রসুন বিক্রি হয়েছে ৫০ থেকে ৬০ টাকা। আর একদিন আগে ছিল ৪০ থেকে ৪৫ টাকা। এ ছাড়া আলুর (মানভেদে) দাম প্রতি কেজিতে বেড়েছে ২২ শতাংশ। আলু বিক্রি হয়েছে ২৫ থেকে ৩০ টাকা। এর একদিন আগে বিক্রি হয়েছে ২০ থেকে ২৫ টাকা।

বাজারে খোঁজ নিয়ে দেখা যায়, ব্যবসায়ীরা মান অনুযায়ী, দেশি পেঁয়াজের কেজি বিক্রি করছেন ৭০ থেকে ৮০ টাকা। যা দুদিন আগে ছিল ৫৫ থেকে ৬০ টাকা। দেশি পেঁয়াজের পাশাপাশি দাম বেড়েছে আমদানি করা ভারতীয় পেঁয়াজের। দু’দিন আগে ৪৫ থেকে ৫০ টাকা কেজি বিক্রি হওয়া আমদানি করা পেঁয়াজ এখন বিক্রি হচ্ছে ৬০ থেকে ৬৫ টাকা।

খিলগাঁও বাজারের ব্যবসায়ী সোহেল রানা বলেন, গত দুই দিনে পাইকারি বাজারে পেঁয়াজের দাম কেজিতে বেড়েছে ২০ টাকা। বাড়তি দামে কেনার কারণে আমরাও বেশি দামে বিক্রি করছি। দুদিন আগে দেশি পেঁয়াজের কেজি ছিল ৬০ টাকা, এখন সেই পেঁয়াজের কেজি ৮০ টাকা বিক্রি করতে হচ্ছে।

পেঁয়াজের দাম বাড়ার কারণ কি- এমন প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, পাইকাররা বলছেন দেশি পেঁয়াজের মজুদ শেষ হয়ে যাচ্ছে। গোডাউনে খুব বেশি পেঁয়াজ নেই। এ কারণেই দাম বেড়েছে।

কারওয়ানবাজারের ব্যবসায়ী লোকমান হোসেন বলেন, বাজারে এখন পেঁয়াজের আমদানি (সরবরাহ) কম, এ কারণে দাম বেড়েছে। আজ (বৃহস্পতিবার) আমরা দেশি পেঁয়াজের কেজি বিক্রি করছি ৬২-৬৪ টাকা। আগে এই পেঁয়াজের কেজি বিক্রি করেছি ৪৭-৪৮ টাকা। এ হিসাবে পাইকারিতে পেঁয়াজের দাম কেজিতে বেড়েছে ১৫-১৬ টাকা।

তিনি বলেন, এখন বাজারে পেঁয়াজ কম তাই দাম বেড়েছে। বাজারে পেঁয়াজের আমদানি হলে (সরবরাহ বাড়লে) আবার দাম কমে যাবে। আমাদের ধারণা পেঁয়াজের দাম খুব বেশিদিন বাড়তি থাকবে না। কারণ অল্পদিনের মধ্যেই বাজারে নতুন পেঁয়াজ চলে আসবে।

আগামীনিউজ/নাসির