Agaminews
 অমর একুশে
Dr. Neem Hakim

করদাতা কোম্পানি বেড়েছে ৫৭ হাজার


আগামী নিউজ | অর্থনৈতিক ডেস্ক প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২১, ০৩:১৭ পিএম
করদাতা কোম্পানি বেড়েছে ৫৭ হাজার

ছবি: সংগৃহীত

ঢাকাঃ দেশে বাড়ছে ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের সংখ্যা। বিশেষ করে লিমিটেড কোম্পানি। প্রতিষ্ঠান বাড়ে, কিন্তু ই-টিআইএন আর রিটার্ন বাড়ে না। করজালে থাকা প্রতিষ্ঠানও কর ফাঁকি দিতে জমা দেয় ভুয়া অডিট রিপোর্ট। সব লিমিটেড কোম্পানিকে করজালে আনতে আগস্ট মাসে টাস্কফোর্স গঠন করে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)।

টাস্কফোর্স ই-টিআইএন নেয়া, রিটার্ন নিশ্চিত ও ভুয়া অডিট রিপোর্ট প্রতিরোধে কাজ করে। মাত্র ছয় মাসে টাস্কফোর্সের কার্যক্রমে ভালো ফল আসে। ৫৭ হাজারের বেশি নতুন করদাতা কোম্পানি করের আওতায় এসেছে, যা মোট কোম্পানির ৭০ শতাংশ। আগামী এপ্রিলের মধ্যে শতভাগ লিমিটেড কোম্পানি করের আওতায় চলে আসবে।

এছাড়া চলতি অর্থবছর কোম্পানির রিটার্ন বেড়েছে ৩৫ দশমিক ২১ শতাংশ, যেখানে ২০১৯-২০ অর্থবছর ছিল মাত্র শূন্য দশমিক ৯১ শতাংশ। আর এনবিআরের ইতিহাসে করদাতা কোম্পানির রিটার্ন ১ শতাংশের বেশি কখনও হয়নি। শুধু ই-টিআইএন আর রিটার্ন দাখিল নয়, চলতি অর্থবছর কোম্পানি আয়করের পরিমাণ বাড়বে ৫০০ থেকে ১ হাজার কোটি টাকা। আর আগামী অর্থবছর বাড়বে ২ থেকে ৩ হাজার কোটি টাকা। সম্প্রতি টাস্কফোর্স কমিটি প্রতিবেদন দিয়েছে, যাতে এসব তথ্য উঠে এসেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, চলতি অর্থবছর (১৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত) প্রায় ছয় মাসে কোম্পানি হিসেবে নতুন ই-টিআইএন নিয়েছে ৫৭ হাজার ৫৩৫টি। যেখানে ২০১৯-২০ অর্থবছর নিয়েছে ৬ হাজার ৬২৭, ২০১৮-১৯ অর্থবছর ৬ হাজার ৪৩৬, ২০১৭-১৮ অর্থবছর ৬ হাজার ৭১৯ ও ২০১৬-১৭ অর্থবছর ৫ হাজার ৫৫৫। আরজেএসসি নিবন্ধিত কোম্পানির সংখ্যা ১ লাখ ৭৬ হাজার ৪০০। এর মধ্যে ২০২০ সালের আগস্ট পর্যন্ত ৪৫ শতাংশ অর্থাৎ ৭৮ হাজার ই-টিআইএনের আওতায় এসেছে। বাকি ৫৫ শতাংশ অর্থাৎ ৯৮ হাজার ৪০০ কোম্পানির কর আওতার বাইরে (টিআইএন নেই)। আর চলতি বছরের ১৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ১ লাখ ৩৫ হাজার ৩৫২ কোম্পানি করের আওতায় (টিআইএন নিয়েছে) চলে এসেছে। চলতি বছরের এপ্রিলের মধ্যে শতভাগ কোম্পানি করের আওতায় চলে আসবে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

 

আগামীনিউজ/এএইচ