Agaminews
sadhinotar-mas
Dr. Neem Hakim

বগুড়ায় স্ত্রীর মামলায় পুলিশ কর্মকর্তা জেলে


আগামী নিউজ | নাহিদ আল মালেক, বগুড়া প্রতিনিধি প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২১, ০২:৩৯ পিএম
বগুড়ায় স্ত্রীর মামলায় পুলিশ কর্মকর্তা জেলে

ছবি: আগামী নিউজ

বগুড়াঃ  দ্বিতীয় স্ত্রীর দায়ের করা মামলায় পুলিশের এসআই মো. গাউসুল আজম (৩৫) কে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত।

বুধবার বগুড়ার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুন্যাল-২ এর বিচারক নুর মোহাম্মাদ শাহরিয়ার কবির তার জামিন না মুঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। 

এসআই গাউসুল আজম বর্তমানে নওঁগা জেলা পুলিশে কর্মরত । তার গ্রামের বাড়ি জয়পুরহাট জেলার পাচঁবিবি উপজেলার চেচঁরা গ্রামে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ২০২০ সালের ১১ ফেব্রæয়ারি এসআই গাউসুল আজম তার প্রথম বিয়ের কথা গোপন করে বগুড়ার সরকারি মুজিবুর রহমান মহিলা কলেজের ইংরেজী বিভাগের মাষ্টার্সের ছাত্রী তমানিয়া আফরিনকে বিয়ে করেন।

বিয়ের কয়েকমাস পর তমানিয়া অন্ত:স্বত্তা হবার পর জানতে পারেন তার স্বামী আগের স্ত্রী ও সন্তানের কথা গোপন করেছেন। ২০২০ সালের ১৭ আগষ্ট এসআই গাউসুল আজম তার দ্বিতীয় স্ত্রীর বাড়িতে গিয়ে যৌতুকের দাবীতে নির্যাতন করলে সাত মাসের গর্ভের সন্তান নষ্ট হয়ে যায়। এরপর ২০২০ সালের ২২ সেপ্টেম্বর বগুড়ার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালে স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন তমানিয়া আফরিন।

বগুড়ার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনাল-২এর পিপি এ্যাড. আশেকুর রহমান সুজন জানান, যৌতুক দাবীসহ গর্ভের সন্তান নষ্টের অভিযোগে স্ত্রীর মামলায় এসআই গাউসুল হাইকোর্ট থেকে ৮ সপ্তাহের জামিনে ছিলেন। বুধবার আদালতে হাজিরা দিয়ে জামিন আবেদন করলে আদালত তা না মুঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নিদের্শ দিয়েছেন।

আগামীনিউজ/সোহেল