থাইল্যান্ডকে উড়িয়ে এশিয়া কাপ শুরু বাংলাদেশের


আগামী নিউজ | ক্রীড়া ডেস্ক প্রকাশিত: অক্টোবর ১, ২০২২, ১২:০০ পিএম
থাইল্যান্ডকে উড়িয়ে এশিয়া কাপ শুরু বাংলাদেশের

ঢাকাঃ বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলের দুরন্ত ফর্ম ছুটছেই। সম্প্রতি বিশ্বকাপ বাছাইয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়ে দেশে ফেরা দলটি এবার ঘরের মাঠে এশিয়া কাপেও করলো দুর্দান্ত সূচনা।

এশিয়া কাপ টি-টোয়েন্টির উদ্বোধনী ম্যাচেই থাইল্যান্ডকে ৮২ রানে অলআউট করে ৯ উইকেট আর ৫০ বল হাতে রেখে জিতেছে নিগার সুলতানা জ্যোতির দল।

আজ শনিবার সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের আউটার মাঠে টস ভাগ্যটা সঙ্গ দেয়নি বাংলাদেশ অধিনায়ক নিগারকে। টস জিতে থাইল্যান্ড নেয় ব্যাট করার সিদ্ধান্ত। তবে সে সিদ্ধান্তটাকে মোটেও ‘ভালো’ মনে হতে দেয়নি বাংলাদেশের বোলাররা। থাই মেয়েদের গুঁড়িয়ে দিয়েছে ৮২ রানেই।

থাইল্যান্ড অবশ্য শুরুটা করেছিল বেশ দেখে শুনে। তবে বাংলাদেশি বোলাররা একটু পরই চড়াও হন তাদের ওপর। পঞ্চম ওভারে প্রথম উইকেট খোয়ায় থাইরা। পাওয়ারপ্লের শেষ ওভারে আরও একটা। এরপর পান্নিতা মায়া ২২ বলে ২৬ রানের ইনিংস খেলে বাংলাদেশকে খানিকটা অস্বস্তিতেই রেখেছিলেন। 

তবে দলীয় ৫৪ রানে তিনি ফেরার পরই ভেঙে পড়ে থাইল্যান্ডের ইনিংস। ৩ ওভারের ব্যবধানে ৫৪-২ থেকে ৬১-৭ হয়ে যায় থাইদের স্কোরকার্ড। এরপরও যে থাইদের ইনিংসটা ২০ ওভার পর্যন্ত গিয়েছে, তার কৃতিত্বটা পুরো সরনারিন তিপোচ আর রোসেনান কানোহের। দুজনের ১১ ও ১০ রানের দুই ইনিংসে শেষমেশ স্কোরটা ৮২ পর্যন্ত নিয়ে যায় থাইল্যান্ড।

রুমানা আহমেদ বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নেন। ২টি করে উইকেট শিকার করেন নাহিদা, সানজিদা ও সোহেলী।

৮৩ রানের জয়ের লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক মেজাজে ব্যাটিং করতে থাকে বাংলাদেশ। প্রথম পাওয়ার প্লেতেই নিগার সুলতানার দল তুলে ফেলে বিনা উইকেটে ৫৫ রান। জয় থেকে ১৪ রান দূরে থাকতে শামীমা থিপাচা পুত্থাওংয়ের বলে এলবিডব্লিউর শিকার হন। মাত্র ১ রানের জন্য ক্যারিয়ারের তৃতীয় হাফসেঞ্চুরি বঞ্চিত হন তিনি। ৩০ বলে ১০ চারে ১৬৩ দশমিক ৩৩ স্ট্রাইকরেটে ৪৯ রান করে আউট হন এই ব্যাটার। বাকি পথটুকু অনায়সেই পাড়ি দেয় ফারজানা হক ও নিগার সুলতানা। যদিও শামীমরা আউটের পর সেই আক্রমণাত্মক মেজাজে কিছুটা ভাটা পড়ে। ফারজানা ২৯ বলে ২ চার ও ১ ছক্কায় ২৬ রানে অপরাজিত থাকেন। অন্যদিকে অধিনায়ক জোত্যি ১ ছক্কায় ১১ বলে ১০ রানে অপরাজিত থাকেন।

শনিবার এই ম্যাচ দিয়েই সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের দুই নম্বর গ্রাউন্ডের অভিষেক হয়েছে। ভেন্যুর অভিষেক রাঙিয়ে তুলতে সিলেটের বিভিন্ন জেলা থেকে দর্শকরা এসেছেন খেলা দেখতে। তীব্র গরমে কষ্ট পেলেও শামীমা-ফারাজার ব্যাটে সেই কষ্ট উবে গেছে দর্শকদের। আরেফিন নামের এক ক্রিকেট ভক্ত সুনামগঞ্জ থেকে এসেছেন। মেয়েদের ক্রিকেট নিয়ে অনেক বেশি আশা তার। এই কারণে তীব্র রোদও আরেফিনকে আটকে রাখতে পারেনি। রোদ মাথায় নিয়ে আরেফিনের মতো বহু দর্শক মাঠে সরব ভূমিকাতে।

এমবুইউ