Dr. Neem
Dr. Neem Hakim

দুপচাঁচিয়ায় শেয়াল আতংক


আগামী নিউজ | দেওয়ান পলাশ, দুপচাঁচিয়া (বগুড়া) প্রতিনিধি প্রকাশিত: অক্টোবর ১৬, ২০২১, ০৬:৫৮ পিএম
দুপচাঁচিয়ায় শেয়াল আতংক

ফাইল ছবি

বগুড়া: জেলার দুপচাঁচিয়া উপজেলার বিভিন্নস্থানে বেড়েছে শিয়াল আতংক। শেয়ালের কামড়ে ক্ষত-বিক্ষত হওয়ার খবর মিলছে চারিদিকে।

দুপচাঁচিয়া উপজেলার জিয়ানগর ইউনিয়নের খিদিরপাড়া গ্রামে শুক্রবার (১৬ অক্টোবর) ভোরে হাঁটতে আসা ব্যক্তিরা শেয়ালের কামড়ে মারাত্বক আহত হয়েছে।

আহতরা হলেন মৃত মঈন উদ্দিনের ছেলে মুনছুর রহমান (৬০), মৃত আমির আলীর ছেলে আশরাফ আলী (৫৩),মৃত ছামের আলীর ছেলে আলাল আলী (৫০),আব্দুল বারি আকন্দের ছেলে বাচ্চু আকন্দ (৬০), আশরাফ আলীর স্ত্রী সাহারা খাতুন (৫০), মোহাম্মাদ আলীর ছেলে রাজু (৩১), ইয়াসিন আলীর ছেলে ইমরান (২৮),খোরশেদ আলীর ছেলে সোহাগ (২৭), নাজমুলের শিশুপুত্র শান্ত (৮),মোশারফ হোসেনের ছেলে রাশেদ রানা (৩৫)এবং আবু বক্করের ছেলে সিয়াম হোসেন (৩৫)।

ভুক্তভোগীরা জানান, ভোরে হাঁটার সময় পথচারীদের দলবদ্ধভাবে আক্রমন করে ৮/১০  টি শেয়াল। তাদের চিৎকারে এগিয়ে আসা ব্যক্তিদেরও শেয়াল আক্রমন করে। পরে লাঠিসোটা নিয়ে পাল্টা আক্রমন করে দুটি শেয়াল মেরে ফেলে লোকজন।

সিংড়া গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকসহ অনেক পথচারীরা জানায়, সন্ধ্যাবেলার পরে এবং ভোরবেলায় পথের উপরে শিয়ালের বেশ আনাগোনা থাকে। তাই পথ চলতে গিয়ে আতঙ্কগ্রস্থ থাকতে হয় পথিকদের। তাছাড়া সন্ধ্যার পর থেকেই চারিদিকে শিয়ালের ব্যাপক হাকঁ-ডাঁক শুরু হয়ে যায়।

মাজিন্দা গ্রামের কয়েকজন গৃহবধূ জানান, সংসারে কিছুটা স্বচ্ছলতা ফেরাতে ও টুকিটাকি হাতখরচের জন্য টাকা আয় করতে হাঁস, মুরগি পালন করে থাকে তারা। কিন্তু শিয়ালের দল তাদের পালিত হাঁস, মুরগি ধরে নিয়ে যাচ্ছে প্রায় সময়।

এছাড়া উপজেলার বিভিন্নস্থানে ইতোপূর্বে গরু কে কামড় দেয়াসহ শিয়াল দলের তান্ডবে ফসল নষ্ট করার খবর পাওয়া গেছে।

দুপচাঁচিয়া জাহানারা কামরুজ্জামান কলেজের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের প্রভাষক মঞ্জিলা পারভিন বলেন, শিয়াল নিশাচর প্রাণী। এরা সন্ধ্যায় ও ভোরবেলা খাদ্য আহরনে বের হয়। তবে খাদ্য আহরনের সুযোগ পেলে দিনের বেলাতেও এরা বের হয়। মূলতঃ খাদ্য সংকটের কারনেই শিয়াল লোকালয়ে হানা দিতে আসে। শিয়াল সাধারনত; মৃত প্রাণীর মাংস,ইদুঁর, শামুক,কাঁকড়া  খেয়ে বেঁচে থাকে। শিয়ালের বাসসস্থানের নিকটবর্তী খাবার না পেলে লোকালয়ে চলে এসে এরা হাঁস, মুরগির উপর হানা দেয় । জমির ক্ষেতগুলিতে কিটনাশক প্রয়োগের ফলে শিয়ালের খাদ্য শামুক, ইদুঁর, কাঁকড়া আগের চেয়ে এখন অনেক কমে গেছে।

তিনি আরও জানান, শিয়াল এমনিতে সাধারনত: মানুষদের কামড়ায় না। তবে শিয়াল আত্মরক্ষার্থে কিংবা পাগলা হলে মানুষদের কামড়ায়। শিয়ালের কামড়ে জলাতঙ্ক রোগ হয়। কাজেই শিয়াল কামড়ালে দ্রুত প্রতিষোধক গ্রহন করা দরকার। তবে প্রাকৃতিক ভারসাম্য রক্ষার জন্য শিয়ালদের বাঁচিয়ে রাখা জরুরি বলেও জানান তিনি।

আগামীনিউজ/ হাসান