Dr. Neem
Dr. Neem Hakim

পান


আগামী নিউজ | ডঃ নিম হাকিম প্রকাশিত: জুলাই ৮, ২০২১, ০১:৩৪ পিএম
পান

ছবি: সংগৃহীত

পরিচিতিঃ (Botanical Name: Piper betle Linn., Common Name: Pan, English Name: Betel Leaf, Family: Piperaceae)

পান লতানো গাছ এবং কান্ড শক্ত। পাতা ৩ থেকে ৮ ইঞ্চি লম্বা, অগ্রভাগ সরু এবং বৃন্তদেশ হৃদপিন্ডাকৃতির। পাতায় ৭ টি শিরা আছে বলে এক সপ্তশিরা বলা হয়। অনেক রকমের পান আছে। যথা- বাংলা পান, সাঁচি পান, কর্পূর গন্ধ যুক্ত মিঠা পান ইত্যাদি। বিভিন্ন প্রকার পানের স্বাদ ও পানের পার্থক্য আছে। মার্চ থেকে মে মাস পর্যন্ত পানের ফুল ও ফল হয়ে থাকে। চীন, মালেশিয়া ও ভারত পানের আদি বাসস্থান।

প্রাপ্তিস্থানঃ বাংলাদেশের রাজশাহী, বাগেরহাট, কুষ্টিয়া ও বরিশালে পানের চাষ বেশী হয়। সুনামগঞ্জ, রাঙামাটি, বান্দরবান, খাগড়াছড়ি জেলার পাহাড়ি অঞ্চলে আদিবাসীরা বড় গাছে পান উটিয়ে দিয়ে চাষ করে। বৃহত্তর ফরিদপুর জেলায়ও পান চাষ করা হয়।

চাষাবাদঃ  পান চাষ সাধারনতঃ পানের বরজে কাটীং থেকে করা হয়। পানের লতানো কান্ডের গিট থেকে অস্থানিক মূল বের হয়। এই মূলের সাহায্যে লতিয়ে ওঠা জিনিসকে শক্ত করে রাখে। পান গাছ ছায়াতে হয়। পান গাছকে তাই বিশেষভাবে তৈরী ঘন বেড়া ও উপরে চালা দিয়ে ঢেকে রাখতে হয়। এভাবে ঢেকে রাখা পান ক্ষেতকে বলা হয় বরজ।

লাগানোর দূরত্বঃ দেড় থেকে দুই ফুট।

উপযোগী মাটিঃ দো-আঁশ মাটি পান চাষের জন্য ভালো।

পক্রিয়াজাতকরণ/সংরক্ষণঃ সাধারণতঃ কাঁচা অবস্থায় পান পাতা ব্যবহার করা হয়।

ব্যবহার্য অংশঃ পাতা।

উপকারিতা/ লোকজ ব্যবহারঃ পান মনে প্রফুল্লতা আনে, হৃদপিন্ড, পাকস্থলী এবং মস্তিষ্ক সতেজ ও শক্তিশালী করে। পান যৌন শক্তি বৃদ্ধি করে, রক্ত পিত্ত ও শ্লেষ্মা বিকৃতি দূর করে। পান স্বরযন্ত্র ও শ্বাসনালী প্রদাহে উপকারি। পানের রস কান পাকা ও মাথার উকুন দূর করে। পানের শিকড়ে গর্ভ নিরোধক শক্তি আছে।

কোন অংশ কিভাবে ব্যবহার হয়ঃ

  • পান চিবলে দাঁত ও মাড়ি মজবুত করে ও মাড়ি ফুলা দূর করে।
  • সুপারি ও এলাচি সংগে পান খেলে দাঁত ব্যথা ও মুখের দুর্গন্ধ দূর করে মুখের সুগন্ধ আনয়ন করে।
  • পান বাটা বা চিবিয়ে প্রলেপ  দিলে টাটকা  ক্ষতের রক্ত পড়া বন্ধ ও ক্ষত শুকায়।
  • সুপারি ও চুনের সাথে পানের রস গ্রহন করতে হয় এবং রস চিবানোর পর অবশিষ্টাংশ ফেলে দিতে হয়।
  • পানের রস চোখে দিলে রাতকানায় আরাম হয়।
  • পানসহ একটু পানি হালকা গরম করে বারবার খেলে গলার ব্যথা কমে যায়।
  • প্রসূতির স্তনে পান স্থাপন করলে ফোলা দূর হয় এবং দুগ্ধস্রাব কমে যায়।
  • পানের রস দিয়ে পারদ শোধন করা হয়।

পরিপক্ক হওয়ার সময়কালঃ সাধারণত ১ বছরে পান পরিপক্ক হয়।

অন্যান্য ব্যবহারঃ পৃথিবীব্যাপী পানের জনপ্রিয়তা রয়েছে।

আয়ঃ প্রতি একর জমিতে বছরে ১,০০,০০০ টাকা থেকে ১,৫০,০০০ টাকা আয় করা যায়।