Agaminews
Bangla Noboborsho
Dr. Neem Hakim

তোকমা


আগামী নিউজ | ডঃ নিম হাকিম প্রকাশিত: মার্চ ২৮, ২০২১, ০৬:০৬ পিএম
তোকমা

ছবিঃ সংগৃহীত

পরিচিতিঃ (Botanical Name: Hyptis suaveolens(L.) Poit., Common Name: Tokma, English Name: Salvia Seeds, Family Name: Labiatae)

তোকমা তুলসী জাতীয় একপ্রকার বর্ষজীবী উদ্ভিদ। কান্ড হতে বহু শাখা-প্রশাখা বের হয়। পাতার বৃন্ত দেশ হৃদপিন্ডাকৃতির। পুষ্পদন্ডের উপরিভাগে গুচ্ছবদ্ধ বহু ফুল হয়। ছোট ছোট ফল সরু, লম্বা ও মসৃণ। নভেম্বর ও ডিসেম্বর মাসে ফুল ও ফল হয়। এই বর্ষজীবী সরল উদ্ভিদটি ভারত ও পাকিস্তানে প্রচুর চাষ হয়। বাংলাদেশেও জন্মাতে দেখা যায়। কান্ড থেকে বহু শাখা প্রশাখা বের হয়। পাতা ১.৫-২.৫ সে.মি লম্বা ও বৃন্তদেশ হৃদপিন্ডাকৃতি। ফুলের বোঁটা ক্ষুদ্র। ফল সরু, লম্বা ও মসৃণ। ইরান, পাকিস্তান ও ভারত এর আদি বাসস্থান।

প্রাপ্তিস্থানঃ তোকমা উপমহাদেশের পশ্চিমভাগে অর্থাৎ ভারত ও পাকিস্তানে প্রচুর জন্মে ও চাষ হয়।

চাষাবাদঃ এপ্রিল মাস পর্যন্ত জমিতে বীজ ছড়ানো হয়।

লাগানোর দূরত্বঃ দেড় থেকে দু ফুট জমিতে ছিটিয়ে চাষ করা যায়।

মাটির গুনাগুণঃ বেলে মাটিতে ভালো হয়।

বীজ আহরণঃ ডিসেম্বর মাসে বীজ সংগ্রহ করতে হয়।

প্রতি কেজিতে বীজের পরিমাণঃ লক্ষাধিক।

প্রক্রিয়াজকরণ/সংরক্ষণঃ এপ্রিল মাসে গাছ থেকে ফল পৃথক করে শুকিয়ে নিয়ে বস্তায় ভরে সংরক্ষণ করা হয়।

ব্যবহার্য অংশঃ বীজ।

উপকারিতা/লোকজ ব্যবহারঃ তোকমা শীতলকারক ও প্রশান্তিদায়ক এবং প্রসাবের জ্বালা-পোড়া কমায় ও প্রসাবের প্রতিবন্ধকতা অপসারক। বুক ধড়ফড় ও হৃদপিণ্ডের দুর্বলতা নাশক। পিপাসা নিবারক এবং পেটের ব্যথা ও বায়ুনাশক। তোকমা বীজ ভাজা চূর্ণ বীর্যস্তম্ভক ও উষ্ণজনিত শুক্রক্ষরণে উপকারি।

কোন অংশ কিভাবে ব্যবহৃত হয়ঃ

  • তোকমা পানিতে ভিজিয়ে পট্টি দিলে ফোঁড়া বসে যায় ও ফেটে যায়।
  • বীজ শান্তিকর, প্রসাবের জ্বালা, আটকায়ে প্রসাব হওয়া রোগে তোকমা ভেজা পানি ব্যবহারে বেশ উপকার হয়।
  • তোকমার বীজ পানিতে ভিজিয়ে খেলে পেটের বায়ু অনেকাংশে কমে যায়।

পরিপক্ক হওয়ার সময়কালঃ ৯-১০ মাস।

অন্যান্য ব্যবহারঃ পশুখাদ্য হিসেবে এর ব্যবহার রয়েছে। পানির সাথে মিশালে হরহরে ও আঠার মত হয় বলে এটি অনেক ধরনের পানীয় দ্রব্যে ও ঔষুধে ব্যবহৃত হয়।

আয়ঃ প্রতি একর জমিতে ৪০,০০০ টাকা থেকে ৬০,০০০ টাকা।

আগামীনিউজ/নাসির