Agaminews
August

পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিবেন বাকৃবির সাবেক অধ্যাপক


আগামী নিউজ | তানিউল করিম জীম, বাকৃবি প্রতিনিধি প্রকাশিত: জুলাই ১৬, ২০২১, ০১:৫০ পিএম
পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিবেন বাকৃবির সাবেক অধ্যাপক

ফাইল ফটো

ময়মনসিংহঃ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণ করবেন বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) সাবেক অধ্যাপক ড. শামসুল আলম। আগামী রবিবার প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেবেন তিনি। শুক্রবার সকালে তিনি নিজেই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। আগামী রবিবার বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ প্রতিমন্ত্রী হিসেবে তাকে শপথ বাক্য পাঠ করাবেন।

চুক্তিভিত্তিক পরিকল্পনা কমিশনের সাধারন অর্থনীতি বিভাগের (জিইডি) সদস্য ও সিনিয়র সচিব হিসেবে দীর্ঘ ১২ বছর দায়িত্ব পালন করেন। গত ৩০ জুন তার মেয়াদ শেষ হয়েছে।

মন্ত্রিসভার রুটিন পরিবর্তন হিসেবে সাবেক এই সিনিয়র কর্মকর্তাকে মন্ত্রিসভায় যুক্ত করা হচ্ছে বলে জানা গেছে। দীর্ঘদিন ধরে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ে কাজ করার অভিজ্ঞতা থেকেই তিনি পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পেতে যাচ্ছেন।

এ বিষয়ে ড. শামসুল আলম বলেন, প্রধানমন্ত্রী আমাকে জিইডিতে যে দায়িত্ব দিয়েছিলেন, সেটি আমি সঠিকভাবে পালন করেছি। এখন যে বিশ্বাস ও আস্থা রেখে নতুন দায়িত্ব দিচ্ছেন, সেটিও যথাযথভাবে পালন করব ইনশাআল্লাহ। আমার  প্রধান কাজ  হবে—  উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নে গতি বৃদ্ধি করা।

ড. শামসুল আলম পেশাগত জীবনে ১৯৭৪ থেকে ২০০৯ পর্যন্ত বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি ব্যবসা ও বিপণন বিভাগে শিক্ষকতা করেন। ৩৫ বছর অধ্যাপনার অভিজ্ঞতা শেষে প্রেষণে ছুটিতে যান। ২০০৯ সালের ১ জুলাই পরিকল্পনা কমিশনের সদস্য হিসেবে যোগদান করেন। পরে ২০১৪ সালে সিনিয়র সদস্য বা সিনিয়র সচিব হিসেবে পদোন্নতি পান। তার কর্মজীবনে তিনি  দারিদ্র্যবিমোচন কৌশলপত্র সংশোধন ও পূর্ণ বিন্যাস, তিনটি পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা, জাতীয় টেকসই উন্নয়ন কৌশলপত্র, শতবর্ষের ডেল্টা প্ল্যানসহ নানা পরিকল্পনা প্রণয়ন করার মধ্য দিয়ে  দেশকে এগিয়ে নিয়ে গেছেন। এর স্বীকৃতিস্বরূপ ২০২০ সালে অর্থনীতিতে একুশে পদক লাভ করেছেন তিনি।

অধ্যাপক ড. শামসুল আলম যুক্তরাজ্য থেকে অর্থনীতিতে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি জার্মানির হুমবোল্ট বিশ্ববিদ্যালয়, বেলজিয়ামের ঘেণ্ট বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিশ্বের চারটি বিশ্ববিদ্যালয়ে তিনি ভিজিটিং প্রফেসর হিসেবেও কাজ করেন।