August
  1. প্রচ্ছদ
  2. জাতীয়
  3. সারাবাংলা
  4. রাজনীতি
  5. রাজধানী
  6. আন্তর্জাতিক
  7. আদালত
  8. খেলা
  9. বিনোদন
  10. লাইফস্টাইল
  11. শিক্ষা
  12. স্বাস্থ্য
  13. তথ্য-প্রযুক্তি
  14. চাকরির খবর
  15. ভাবনা ও বিশ্লেষণ
  16. সাহিত্য
  17. মিডিয়া
  18. বিশেষ প্রতিবেদন
  19. ফটো গ্যালারি
  20. ভিডিও গ্যালারি

খালেদা জিয়াকে বিদেশে না পাঠালে সরকার পালানোর পথও খুঁজে পাবে না: ফখরুল

ডেস্ক রিপোর্ট প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৫, ২০২১, ০৩:২৪ পিএম খালেদা জিয়াকে বিদেশে না পাঠালে সরকার পালানোর পথও খুঁজে পাবে না: ফখরুল
ছবিঃ সংগৃহীত

ঢাকাঃ সরকারের স্বার্থে খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিয়ে বিদেশে চিকিৎসা করতে পাঠানোর ব্যবস্থা করার আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেছেন, আপনাদের স্বার্থে দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিয়ে বিদেশে চিকিৎসা করতে পাঠান। তাকে সুস্থ করে নিয়ে আসুন। তা না হলে আপনারা পালানোর পথটাও খুঁজে পাবেন না।

রোববার (৫ ডিসেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে উন্নত চিকিৎসার দাবিতে আয়োজিত সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দল এ সমাবেশের আয়োজন করে।

সমাবেশে উপস্থিত শ্রমিক দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ করে মির্জা ফখরুল বলেন, আসুন জনগণের উত্তাল তরঙ্গের মাধ্যমে সরকারকে বাধ্য করি। খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিতে হবে, তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠাতে হবে।

খালেদা জিয়াকে মুক্তি ও উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে না পাঠালে সরকারকে একদিন জনগণের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার গণতন্ত্রের কথা মুখে বলে, বিশ্বাস করে না। ১৯৭১ সালে স্বাধীনতার পর তারা একই কাজ করেছে। গণতন্ত্রকে বাদ দিয়ে বাকশাল গঠন করে একনায়কতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেছিল।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, বেগম খালেদা জিয়া শুধু বিএনপি নেত্রী বলে আমরা বলছি না, বেগম খালেদা জিয়া এই দেশের মানুষের কল্যাণের জন্য, গণতন্ত্রের জন্য, স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব রক্ষার জন্য, আপসহীন ভূমিকার জন্য দেশের মানুষ তার মুক্তি চায়।

ফখরুল বলেন, আমাদের দুর্ভাগ্য, যারা ক্ষমতায় আছে তারা বড় মানুষদের কথা চিন্তা করে। যাদের মিল-কারখানা আছে, তাদের প্রণোদনা দেয়। কিন্তু যারা মিল-কারখানা চালু রেখেছেন, গাড়ির চাকা চালু রেখেছেন তাদের কোনো প্রণোদনা দেয়নি। সরকার উন্নয়নের কথা বলে, এই উন্নয়ন কাদের হচ্ছে? সাধারণ মানুষের কোনো উন্নয়ন হচ্ছে না। সেজন্য দেশের মানুষ পরিবর্তন চায়। বিএনপিকে ক্ষমতায় আনতে হবে, সেজন্য বলছি না, এই সরকারকে সরাতে হবে।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, খালেদা জিয়া মিথ্যা মামলায় দুই বছরের বেশি সময় পরিত্যক্ত কারাগারে ছিলেন। সেখান থেকে তার যে অসুখ সৃষ্টি হয়েছে, তা এমন এক পর্যায়ে চলে গেছে যে এভার কেয়ারের এবং আমাদের যে চিকিৎসক আছে তারা বলেছেন, অতি দ্রুত খালেদা জিয়াকে উন্নত চিকিৎসার জন্য আমেরিকা বা যুক্তরাজ্যে যদি না নেওয়া হয় তাহলে তার জীবন বাঁচানো মুশকিল হয়ে যাবে।

সরকারের মন্ত্রীরা যে ভাষায় কথা বলেন, কোনো সভ্য মানুষ এ ভাষায় কথা বলতে পারে না উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে আমরা সম্মান করি, শ্রদ্ধা করি। কিন্তু তিনি কখনওই বিএনপির দুঃস্বপ্ন ছাড়া আর কিছুই দেখেন না। সবসময় বিএনপি-বিএনপি করেন। বিএনপি নাকি নাই, বিএনপি যদি নাই থাকে তাহলে এত স্বপ্ন দেখেন কেন।

শিক্ষার্থীদের সড়ক আন্দোলন প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘এত লোক কোথা থেকে আসলো’। এ প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল বলেন, সামনে কোটি কোটি মানুষ রাস্তায় নামবে।

তিনি বলেন, নির্বাচনের কথা বলেন। নির্বাচনের সময় নিরপেক্ষ সরকার থাকতে হবে। নির্বাচন কমিশন যেটা আছে সেটাকে সরিয়ে নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠন করতে হবে।

জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দলের সভাপতি আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে সমাবেশে মহানগর উত্তর বিএনপির আহ্বায়ক আমানউল্লাহ আমান, দক্ষিণের আহ্বায়ক আব্দুস সালাম, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদের ভূঁইয়া জুয়েল প্রমুখ বক্তৃতা করেন।

আগামীনিউজ/বুরহান

Small Banner