Agaminews
Dr. Neem Hakim
Dr. Neem Hakim
তালেবানকে রাশিয়ার অর্থায়ন

মার্কিন সেনা হত্যা, হোয়াইট হাউসের ব্রিফিংয়ে সমালোচনার ঝড় 


আগামী নিউজ | আন্তর্জাতিক ডেস্ক প্রকাশিত: জুন ৩০, ২০২০, ০৩:৩৪ পিএম
মার্কিন সেনা হত্যা, হোয়াইট হাউসের ব্রিফিংয়ে সমালোচনার ঝড় 

ঢাকা : প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সহযোগী রিপাবলিকানদের সঙ্গে শুধুমাত্র তথ্য ভাগাভাগি করার সময় মঙ্গলবার রাশিয়া যুক্তরাষ্ট্রের সেনা হত্যার জন্য তালেবানদের অর্থ প্রদান করার প্রতিবেদনটি আলোচনায় তুলে ধরার চেষ্টা করে হোয়াইট হাউস।

ট্রাম্প প্রশাসনের কর্মকর্তারা বলছেন, মার্কিন এজেন্সিগুলির মধ্যে অন্তর্নিহিত গোয়েন্দা বিষয়ে কোনও সচেতনতা ছিল না এবং ট্রাম্পকেও এ সম্পর্কে সচেতন করা হয়নি। তবে দুজন রিপাবলিকান সংসদ সদস্য বলেছেন যে তারা সোমবার একটি সভায় হোয়াইট হাউস থেকে বিবৃতি শোনার পরে উদ্বিগ্ন রয়েছেন।

ম্যাক থর্নবেরি এবং লিজ চেনি এক বিবৃতিতে বলেছেন, আমরা বিশ্বাস করি যে রাশিয়া বা আমাদের বাহিনীকে লক্ষ্য করে অন্য যে কোনও দেশের সাথে সম্পর্কিত যে কোনও তথ্যেও ব্যাপাওে গুরুত্ব দেয়া উচিত।

নিউইয়র্ক টাইমস এবং ওয়াশিংটন পোস্ট বলছে, রোববার তালেবানের অর্থায়নের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যে এই কর্মসূচির ফলে বেশ কয়েকজন মার্কিন সেনা মারা গিয়েছিলেন। তবে ক্রেমলিন বিষয়টি অস্বীকার করেছেন।

গোয়েন্দা কর্মকর্তারা এখনও বিষয়টি তদন্ত করছেন বলে জানিয়েছেন জাতীয় গোয়েন্দা পরিচালক জন র‌্যাটক্লিফ। এক বিবৃতিতে তিনি বলছেন, দুর্ভাগ্যক্রমে অননুমোদিত খবর প্রকাশের পর আমাদের ক্ষমতাকে বিপন্ন করে তোলে।

এসব বিবৃতিতে হাউস স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি সন্তুষ্ট হতে পারেননি। রাটক্লিফ এবং সিআইএর পরিচালক জিনা হাস্পেলের সঙ্গে কথা বলার পর তিনি জানান, অনেক গুরুতর প্রশ্ন রয়ে গেছে।

সম্প্রতি  আফগানিস্তানে মোতায়েন মার্কিন সেনাদের হত্যা করতে তালেবানের সঙ্গে রাশিয়া হাত মিলিয়েছে বলে মার্কিন দৈনিক নিউ ইয়র্ক টাইমস যে দাবি করেছে তা প্রত্যখ্যান করেছে মস্কো।

রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা বলছে, নিউ ইয়র্ক টাইমসে যে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে তা আগাগোড়া গুজব এবং মার্কিন গোয়েন্দা বিভাগের নির্দেশে এটি তৈরি করা হয়েছে বলে মনে করার যথেষ্ট কারণ রয়েছে। তবে এ ধরনের গুজব ছড়ানো ঘটনায় মার্কিন গোয়েন্দা বিভাগের বুদ্ধিবৃত্তিক দুর্বলতা ফুটে উঠেছে।

দৈনিক নিউ ইয়র্ক টাইমস শুক্রবার এক খবরে দাবি করেছিল, রাশিয়ার একটি অজ্ঞাত গোয়েন্দা ইউনিট আফগানিস্তানে মোতায়েন মার্কিন সেনাদের হত্যা করার কাজে তালেবানকে সবরকম সহযোগিতা করছে।
আফগানিস্তানে তালেবান বিরোধী যুদ্ধ ও দেশটির নিরাপত্তা নিশ্চিত করার অজুহাতে যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্ররা ২০০১ সালে দেশটি দখল করে। সূত্র : রয়টার্স, ইয়ন
 

Dr. Neem